মঙ্গলবার ১৫ই জুলাই, ২০১৯ ইং ১লা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

ঝালকাঠির রাজাপুরে জাল দলিল করে ব্যবসায়ীর জমি দখলের অভিযোগ আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে…………

আপডেটঃ ২:৫২ পূর্বাহ্ণ | জুন ১৯, ২০১৯

গাজী গিয়াস উদ্দিন বশির,ঝালকাঠি:-ঝালকাঠি প্রতিনিধি:ঝালকাঠির রাজাপুরে জাল দলিল তৈরি করে এক ব্যবসায়ীর জমি দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ব্যবসায়ী ইকবাল হোসেনের পৈত্রিক সম্পত্তি স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের নিয়ে দখল করে নেয় ভূমিদস্যুরা। প্রভাবশালী দখলদাররা আদালতের আদেশও উপেক্ষা করেছেন। এমনকি রাজাপুর থানা পুলিশের নির্দেশনাও মানছেন না। এ অবস্থায় পৈত্রিক সম্পত্তি ফিরে পেতে ঝালকাঠির জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের সহযোগিতা চেয়েছেন ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারটি। আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টায় ঝালকাঠি শহরের একটি কমিউনিটি সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে ইকবাল হোসেন এ অভিযোগ করেন।

লিখিত বক্তব্যে তিনি অভিযোগ করেন, ১৯৫৫ সালে তাঁর বাবা আপ্তার উদ্দিন রাজাপুরের ৪৭ নম্বর মৌজার ৩০ শতাংশ জমি ক্রয় করেন। দীর্ঘ ৬৪ বছর ধরে এ জমি ভোগ দখল করে আছেন তারা। ২০১২ সালে স্থানীয় মোফাজ্জেল হোসেনের ছেলে মো. জহুরুল ইসলাম একটি জাল দলিল তৈরি করে জমির মালিকানা দাবি করেন। এ নিয়ে স্থানীয়ভাবে একাধিকবার সালিশ বৈঠক অনুষ্ঠিত হলেও কোন সমাধান হয়নি। গত ৭ জুন গভীর রাতে জহুরুল ইসলাম আওয়ামী লীগ নেতা মো. শাহিন মৃধা ও তাঁর ভাই আরিফ মৃধাসহ ভূমিদস্যু বাহিনী বিরোধীয় জমিতে জোড়পূর্বক ঘর নির্মাণ করে জমিটি দখল করে নেন। বিষয়টি নিয়ে ঝালকাঠির অতিরিক্ত ম্যাজিস্টেট আদালতে মামলা করেন ক্ষতিগ্রস্তরা। আদালত রাজাপুর থানার ওসিকে প্রতিবেদন দেওয়ার নির্দেশ দেন। রাজাপুর থানায় দুই পক্ষের কাগজপত্র নিয়ে গত ১৫ জুন বসার কথা থাকলেও ভূমিদস্যু জহুরুল ইসলাম প্রভাবশালীদের নিয়ে এসে পুলিশকে কোন কাগজপত্র দেখাতে রাজি হয়নি। তারা পুলিশের নির্দেশ না মেনে বৈঠক ছেড়ে বেরিয়ে যায়। এ অবস্থায় নিজের পৈত্রিক সম্পত্তি ভূমিদস্যুদের হাত থেকে রক্ষা করতে প্রশাসনের উর্ধতন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি।