বুধবার ১৬ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং ১লা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

সরকারি কোষাগার থেকে শতভাগ বেতন-ভাতা প্রদান ও পেনশন ভাতা চালুর জন্য চৌগাছা পৌরসভায় অবস্থান কর্মসূচি ও বিক্ষোভ

আপডেটঃ ১২:৪৫ পূর্বাহ্ণ | জুলাই ০২, ২০১৯

আব্দুল আলীম-চৌগাছা (যশোর) প্রতিনিধিঃ সরকারি কোষাগার থেকে শতভাগ বেতন-ভাতা প্রদান, পেনশন ভাতা চালু ও জনপ্রতিনিধিদের সম্মানীভাতা প্রদানের দাবিতে যশোরের চৌগাছা পৌরসভায় অবস্থান কর্মসূচি ও বিক্ষোভ করেছেন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।
আজ সোমবার পহেলা জুলাই চৌগাছা পৌরসভা চত্বরে এই কর্মসূচি পালন করা হয়। বাংলাদেশ পৌরসভা সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের ডাকে  সারাদেশে এই কর্মসূচি পালিত হচ্ছে। তারই রেশ ধরে উক্ত এসোসিয়েশনের চৌগাছা শাখার সভাপতি কালিমুল্লাহ সিদ্দিকের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মুকুরুল ইসলাম মিন্টুর তত্ত্বাবধানে চৌগাছায় এই অবস্থান কর্মসূচি ও বিক্ষোভ সমাবেশ হয়। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন এসোসিয়েশনের চৌগাছা শাখার সদস্য মনিরুল ইসলাম, তফিকুর রহমান, হায়দার আলী, সেলিম রেজা, নজরুল ইসলাম।
চৌগাছা পৌরসভায় এ কর্মবিরতি কর্মসূচি চলাকালে বক্তব্য রাখেন চৌগাছা পৌরসভা কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি কালিমুল্লাহ সিদ্দিক, সাধারণ সম্পাদক মুকুরুল ইসলাম মিন্টু, পৌর সচিব গাজি আবুল কাশেম, সহকারি প্রোকৌশলী মুজিবর রহমান প্রমূখ।
এ সময় বক্তারা বলেন,  ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে’। পৌরসভার মাধ্যমে পৌরবাসীকে কর্মকর্তা-কর্মচারীরাই বিভিন্ন সেবা প্রদান করছেন।  কিন্তু সরকারিভাবে শতভাগ বেতন তাদের দেয়া হচ্ছে না।  এজন্য অনেক সময় বেতন বকেয়া থাকে। ফলে সংকটে পড়তে হয় কর্মচারীদের। আর অবসরের পর পেনশন ব্যবস্থা না থাকায় অনেককে মানবেতর জীবন যাপন করতে হয়। তাই দ্রুত  রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে শতভাগ বেতন-ভাতা প্রদান এবং অবসরের পর পেনশনের ব্যবস্থা করতে হবে। এজন্য আমরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করছি। এই কর্মসূচীর সাথে একাত্মতা ঘোষণা করেন চৌগাছা পৌরসভার প্যানেল মেয়র শাহিনুর রহমান এবং ৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আব্দুর রহমান।
আগামীকাল ২ জুলাই মঙ্গলবার যশোরের সকল পৌরসভার কর্মকর্তা, কর্মচারী এবং নির্বাচত পৌরমেয়রগণ যশোর প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান ধর্মঘট পালন করবেন বলে নিশ্চিত করেন পৌর কর্মচারী সার্ভিস এসোসিয়েশনের চৌগাছা শাখার সাধারণ সম্পাদক মুকুরুল ইসলাম মিন্টু।
উল্লেখ্য, আজ স্ব স্ব পৌর ইউনিটে এই আন্দোলন ও বিক্ষোভ কর্মসূচী পালিত হয়।