সোমবার ১৫ই জুলাই, ২০১৯ ইং ৩১শে আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

বড় শরিফপুর জামে মসজিদ, ইতিহাসের এক স্বাক্ষী …

আপডেটঃ ১১:১৭ অপরাহ্ণ | জুলাই ১২, ২০১৯

রাফিউ হাসান-বিশেষ প্রতিনিধিঃ মসজিদ, তা যদি হয় প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন তাহলে তা ভিন্ন কথা। বড় শরীফপুর জামে মসজিদ। বাংলাদেশের চাঁদপুর জেলার একটি প্রত্নস্থান।

বড় শরিফপুর মসজিদ বাংলাদেশের কুমিল্লা জেলায় অবস্থিত একটি ঐতিহাসিক মসজিদ। এটি বাংলাদেশে অবস্থিত মুঘল স্থাপনার মসজিদ। এটি বাংলাদেশের চট্টগ্রাম বিভাগের কুমিল্লা জেলার লাকসাম থানার বড় শরীফপুর গ্রামে নটেশ্বর দিঘির পূর্বতীরে অবস্থিত।

মসজিদের শিলালিপি অনুযায়ী মসজিদটি মুহাম্মদ হায়াত আবদ করিম ১৭০৬-১৭০৭ সালে নির্মাণ করেন। প্রচলিত মতানুযায়ী নির্মাতা অত্র এলাকার কোতোয়াল ছিলেন। তাই এটি কোতোয়ালি মসজিদ নামে পরিচিত। ১৯৫৯ সাল থেকে মসজিদটি সংরক্ষিত স্থাপনা হিসেবে সংরক্ষিত রয়েছে। ১৯৬০ এর দশকে মসজিদটি সংস্কার করা হয়। পরবর্তীতে বাংলাদেশ প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর আরো সংস্কারকার্য‌ চালায়।

বর্তমানেও এর বাহিরে সংস্কার কার্য চলছে। একসাথে প্রায় ৫০০ মুসল্লি এখানে জামায়াতের সাথে নামাজ আদায় করতে পারে। মসজিদটির আকৃতি আয়তাকার। পূর্বদিকের অংশে তিনটি খিলানযুক্ত দরজা রয়েছে যার মধ্যে কেন্দ্রীয় দরজাটি অপেক্ষাকৃত বড়। দরজাগুলির বিপরীত দিকে পশ্চিম দেওয়ালে তিনটি মিহরাব রয়েছে। এক্ষেত্রেও কেন্দ্রীয় মিহরাবটি বাকি দুইটি মিহরাবের তুলনায় অপেক্ষাকৃত বড়।

মসজিদের চারকোণে চারটি বড় অষ্টভুজাকার মিনার রয়েছে। এছাড়াও কেন্দ্রীয় বৃহৎ প্রবেশপথের উপরে দুইটি অষ্টভুজাকার মিনার রয়েছে। গম্বুজের সংখ্যা তিনটি। কেন্দ্রীয় গম্বুজটি অপেক্ষাকৃত বৃহৎ। গম্বুজের ভেতরের অংশ পাতার নকশা শোভিত। এছাড়া বাইরের অংশে চক্র নকশার কাজ রয়েছে। মসজিদে পশ্চিম দিকে প্রায় ২৮.৩৫ একর বিশিষ্ট একটি দিঘি রয়েছে। সত্যিই অপরুপ সুন্দর এই বাংলাদেশ।