মঙ্গলবার ১৫ই জুলাই, ২০১৯ ইং ১লা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

চৌগাছায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে হামলায় আহত-১

আপডেটঃ ১:২৮ পূর্বাহ্ণ | জুলাই ১৩, ২০১৯

চৌগাছা প্রতিনিধিঃ যশোরের চৌগাছায় পূর্ব শত্রুতার রেশ ধরে আতর্কিতভাবে হামলায় মনিরুজ্জামান কানন (৪০) নামে একজন আহত। আহত কানন চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি আছেন। 
হামলার ঘটনাটি ঘটে উপজেলার জগদীশপুর ইউনিয়নের কান্দি গ্রামে। আহতের পারিবারিক ও আত্মীয় সূত্রে জানা যায়, বুধবার (১১ জুলাই) রাত্রে কান্দি গ্রামে আহত কাননের বাড়ি থেকে ২০০ গজ দূরে আক্কাজ আলীর চায়ের দোকানে রাত আটটার সময় আতর্কিতভাবে এই হামলার ঘটনা ঘটে। হামলার শিকার কাননের সাথে একই গ্রামের মাঝের পাড়ার মনসুর আলীর ছেলে ইমরান হোসেন ওরফে রাজুর সাথে পূর্ব শত্রুতা ছিলো বলে জানা যায়। তারই জের ধরে ইমরান হোসেন সহ তার পিতা মনসুর আলী, চাচা মোহাম্মদ, নবাব, আব্দুল্লাহ ও ইমরানের মামা অর্থাৎ মনসুর আলীর কুটুম চুড়ামনকাটির মাইনুল আহত মনিরুজ্জামান কাননের উপর এই হামলা করে। হামলার শুরুতে তারা লোহার তৈরি টর্চ লাইট দিয়ে কাননকে আঘাত করে। তারপরই তাদের কাছে থাকা চাকু-ছুরি দিয়ে মাথায় আঘাত করে এবং চলে যায়। এরপর স্থানীয়রা আহত কাননকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। 
হাসপাতাল তথ্য থেকে জানা যায়, কাননের মাথায়, ঘাড়ে, পিঠে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। মাথায় গুরুতর আঘাতে কেটে যাওয়ায় তিনটা সেলাই দিতে হয়েছে। 
স্থানীয় ইউপি সদস্য রবিউল হক বলেন এই হামলাটি যে সূত্র ধরে মনসুর ও তার ছেলে ইমরান ওরফে রাজুসহ তার বাহিনী করেছে সেটাতে আহত কানন সম্পূর্ণ নির্দোষ। হামলার সময় আমি যেখানে হামলা হয়েছিলো তার একটু পাশে ছিলাম। ঐ দিন ইন্ডিয়া-নিউজিল্যান্ডের খেলা ছিলো। সবাই দোকান পাটে খেলা দেখছিলো। এইজন্য দোকানে অনেক ভিড় ছিলো। এরই মাঝে মনসুর, মনসুরের ছেলে রাজুসহ পাঁচ/ছয় জনে কাননের উপর হামলা করে। এক্ষেত্রে আমি উপস্থিত থেকে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে মামলা দিয়েছি। তবে স্থানীয় অন্য একটি সূত্র জানায়, হামলাকারীরা জামাত-শিবিরের লোক।
চৌগাছা থানার এসআই গিয়াস উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন অভিযোগ পেয়ে তদন্তের কাজ শেষ হয়েছে। ওসি সাহেব অনুপস্থিত, তিনি আসলেই কেস ফাইলে উঠবে।