মঙ্গলবার ১৫ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং ৩০শে আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

শাহজালালে বিভিন্ন মডেলের ২২৪৬ পিস দামী মোবাইল জব্দ ॥ ৩ যাত্রী আটক

আপডেটঃ ১০:২২ পূর্বাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ০৯, ২০১৯

এস,এম,মনির হোসেন জীবন ॥ ঢাকা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিভিন্ন মডেলের দুই হাজার ২৪৬ পিস দামী মোবাইলসহ তিন যাত্রীকে আটক করেছে বিমানবন্দর আর্মড পুলিশ। আটককৃতরা হলেন- মো. সুজন (৪৯), শাহরিয়ার হোসেন প্রিন্স (৩৩) ও রফিকুল ইসলাম (২৭)।জব্দকৃত মোবাইলের আনুমানিক বাজার মূল্য সাড়ে তিন কোটি টাকা। বলে জানা গেছে।শনিবার (৭ সেপ্টেম্বর) সকাল ৮ টার দিকে বিমানবন্দরের বহিরাঙ্গনের দুই নম্বর ক্যানোপি এলাকা থেকে মোবাইলসহ তাদেরকে আটক করা হয়।
বিমানবন্দর আর্মড পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপারেশন্স অ্যান্ড মিডিয়া) মো: আলমগীর হোসেন শিমুল আজ শনিবার দুপুরে নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানায়, শনিবার সকাল ৭টার দিকে চীনের গুয়াংজু থেকে (ইউএস-বাংলার) একটি ফ্লাইটে ঢাকা শাহজালাল বিমানবন্দরে এসে অবতরণ করে। আর ওই বিমানের যাত্রী ছিলেন মো. সুজন (৪৯), শাহরিয়ার হোসেন প্রিন্স (৩৩) ও রফিকুল ইসলাম (২৭)। আজ সকাল ৮টার দিকে বিমানবন্দরের বহিরাঙ্গনের ২ নম্বর ক্যানোপি এলাকা দিয়ে এই তিন যাত্রী বাহিরে বের হবার সময় তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। পরে তাদের ব্যাগেজ তল্লাশি করে আইফোন, স্যামসাং, ওয়ান প্লাস, টান্সেন্ট গেম, শাওমী ও নোকিয়া ব্র্যান্ডের মোট দুই (২) হাজার ২৪৬পিস বিভিন্ন মডেলের মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। এসব মোবাইলের আনুমানিক বাজার মূল্য সাড়ে তিন কোটি টাকা বলে জানা গেছে।
মো: আলমগীর হোসেন শিমুল জানান, আটক সুজন ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা থানার টগরবন্ড গ্রামের আক্তার হোসেনের পুত্র। শাহরিয়ার হোসেন প্রিন্স ঢাকার ডেমরা থানার পাড়াদুগাইর (আমিনবাগ) হাসেরপুল এলাকার মো. দুলাল হোসেনের পুত্র। এছাড়া আটক মো. রফিকুল ইসলাম ময়মনসিংহ জেলার ফুলবাড়িয়া থানার নওগাঁ (জয়তগঞ্জ) গ্রামের আব্দুর রহমানের পুত্র।
প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা এপিবিএন পুলিশের কাছে স্বীকার করে বলেন, জব্দকৃত মোবাইল গুলো বাংলাদেশ ও ভারতে বিক্রি করার উদ্দেশ্যে আনা হয়েছে। গ্রেফতারকৃ সুজন সহ অন্যরা দীর্ঘ দিন ধরে মোবাইল চোরাকারবারির সঙ্গে জড়িত বলে স্বীকার করেছে। জিঞ্জাসাবাদ শেষে আটককৃতদেরকে বিমানবন্দর থানায় সোপর্দ করা হবে। তাদের বিরুদ্ধে বিমানবন্দর থানায় মামলার দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।