বৃহস্পতিবার ১৪ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং ৩০শে কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

মানসম্মত শিক্ষা ও শিক্ষার মানন্নয়নে স্কুল মিল- নওগাঁয় খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি

আপডেটঃ ৯:৫৩ পূর্বাহ্ণ | নভেম্বর ০৭, ২০১৯

আলহাজ্ব বুলবুল চৌধুরী, নওগাঁ জেলা প্রতিনিধিঃ দারিদ্র্য পীড়িত এলাকায় স্কুল ফিডিং প্রকল্পের আওতায় নওগাঁর পোরশা উপজেলার ১৫টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্কুল মিড ডে মিল কার্যক্রমের উদ্বোধন করেছেন মাননীয় খাদ্য মন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি। বুধবার দুপুরে উপজেলার সরাইগাছি কাতিপর কালিনগর প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত স্কুল ফিডিং উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিতি থেকে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন তিনি।

এসময় খাদ্যমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার শিক্ষার মান উন্নয়ন ও শিক্ষার প্রতি শিক্ষার্থীদের আরও বেশী আগ্রহী করে তুলতে দারিদ্র পীড়িত এলাকায় স্কুল ফিডিং প্রকল্প চালু করেছে। শিক্ষার্থীদের আরও মেধাবী করে গড়ে তুলতে এবং স্বাস্থ্য সেবার মান বাড়াতে পুষ্টিকর খাবারের দিকে নজর দিয়েছে সরকার। ভবিষ্যতে সরকার দেশের প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্কুল মিল চালু করবে। এতে শিক্ষার্থীরা তাদের পড়ার প্রতি মনযোগী হবে এবং শিক্ষার মান উন্নয়নের পাশাপাশি মান সম্মত শিক্ষা নিশ্চিত হবে ।

উপজেলার কালিনগর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে অনুষ্ঠিত ওই উদ্বাধনী সভায়
উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাজমুল হামিদ রেজার সভাপতিত্বে ও কৃষি অফিসার মাহফুজ আলমের স ালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নওগাঁ জেলা পুলিশ সুপার প্রকৌশলী আব্দুল মান্নান মিয়া, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (আইসিটি) কামরুজ্জামন, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের স্কুল ফিডিং প্রকল্পের সহকারী পরিচালক আব্দুল মান্নান, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আমিনুল ইসলাম মন্ডল, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শাহ্ মঞ্জুর মোর্শেদ চৌধুরী, গাক এর নির্বাহী পরিচালক খন্দকার আলমগির হোসেন প্রমূখ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম, উপজেলা আওয়মীলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোফাজ্জল হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান কাজীবুল ইসলাম, শিক্ষা অফিসার সাফিয়া আক্তার অপু সহ উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকগন, অভিভাবক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ। পরে প্রধান অতিথি কালিনগর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিশু শিক্ষার্থীদের মাঝে খিছুড়ি বিতরন করে উপজেলা মিড-ডে মিলের উদ্বোধন করেন।