রবিবার ২৮শে মার্চ, ২০২০ ইং ১৫ই চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

নওগাঁয় আম বাগানগুলোতে মুকুলে ছেয়ে গেছে আশপাশ

আপডেটঃ 2:07 pm | February 28, 2020

নিজস্ব প্রতিবেদক :চ্যানেল সেভেন- ওগাঁর বরেন্দ্র অঞ্চলের সারি সারি আম বাগান ছড়াচ্ছে মুকুলের মৌ মৌ গন্ধ। আম বাগানগুলোতে এখন দেখা যাচ্ছে শুধু মুকুল আর মুকুল। বাতাসে বইছে যেন মুকুলের মৌ মৌ গন্ধ। আমের বাগানগুলো ভরে উঠেছে মুকুলে মুকুলে। গাছে গাছে দৃশ্যমান সোনালী মুকুলের আভা। মুকুলের ভারে প্রতিটি আম গাছের মাথা যেন নুয়ে পড়ার উপক্রম। মৌমাছিরা আসতে শুরু করেছে মধু আহরণের জন্য। গাছে গাছে মুকুলের সমারোহ দেখে আম চাষীদের প্রাণ যেন ভরে যাচ্ছে। সোনালী স্বপ্নে বিভোর এখন বরেন্দ্র অঞ্চলের আমচাষী আর বাগান মালিকরা। আবহাওয়া অনুকুলে থাকলে এবছর আমের বাম্পার ফলন হবে বলে আশা করছেন চাষীরা।

জানা গেছে, নওগাঁ জেলায় এবছর ২০ হাজার ৫’শ হেক্টর জমিতে আম চাষ হচ্ছে। আর উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৩ লক্ষ মেট্রিক টন। এ জেলার মধ্যে সব চাইতে বেশি আম চাষ হচ্ছে পোরশা উপজেলার বরেন্দ্র ভূমিতে। চলতি বছর পোরশা উপজেলায় আম চাষ হচ্ছে প্রায় ২০ হাজার হেক্টর জমিতে। এ উপজেলায় এবছর আমের উৎপাদন লক্ষমাত্রা ধরা হয়েছে দেড় লক্ষ মেট্রিক টন আম।

পোরশা উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মাহফুজ আলম জানান, পোরশা উপজেলায় প্রতি বছর আমের উৎপাদন লক্ষমাত্রা বেড়েই চলেছে। এ উপজেলার উৎপাদিত আম অনেক সুস্বাদু হওয়ায় দেশের সকল বাজারে এখানকার আমের চাহিদা বেশ ভাল রয়েছে। আম মৌসুমের শেষ পর্যন্ত আবহাওয়া ভাল থাকলে এবছর পোরশায় আমের উৎপাদন লক্ষমাত্রা ছাড়িয়ে যাবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

তিনি আরও জানান, যে সকল গাছের মুকুল বের হয়ে ফুঁটে গেছে আকাশের বৃষ্টি হওয়ার কারনে ঐ সকল মুকুলের ক্ষতি হতে পারে। এক্ষেত্রে তিনি চাষিদের ম্যানকোজেব গ্রুপের ভাল মানের ছত্রাকনাশক ঔষুধ গাছে স্প্রে করার পরামর্শ প্রদান করেন।