শনিবার ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

ঢাকাসহ দেশের ৬৮ কারাগারে বন্দীদের সঙ্গে স্বজনদের সাক্ষাৎ বন্ধ : কারা কর্তৃপক্ষ…

আপডেটঃ ১২:০৬ পূর্বাহ্ণ | মে ০৭, ২০২০

এস,এম,মনির হোসেন জীবন :  করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে  ঢাকা সহ দেশের ৬৮ কারাগারে বন্দীদের সঙ্গে স্বজনদের সাক্ষাৎ  বন্ধ করে দিয়েছে কারা কর্তৃপক্ষ। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত সব কারাগারে দর্শনার্থী সাক্ষাৎ বন্ধ রাখা হবে। কারা অধিদপ্তরের মুখপাত্র ও সহকারী মহাপরিদর্শক (আইজি-প্রিজন) মো. মনজুর হোসেন আজ সংবাদমাধ্যমকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।তিনি বলেন, সংশ্লিষ্ট কারাগারের নির্ধারিত মুঠোফোন নম্বরে প্রত্যেক বন্দীকে স্বজনদের সঙ্গে পাঁচ মিনিট কথা বলতে দেওয়া হচ্ছে।  করোনা পরিস্থিতিতে ইতিমধ্যে সব কারাগারের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে।আইজি-প্রিজন মো. মনজুর হোসেন সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ঢাকাসহ দেশের অন্যান্য কারাগারে করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচেছ। গত মাসে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দীসহ ১২ জন করোনাভাইরাসের (উপসর্গ ) নিয়ে আক্রান্ত হন। সোমবার পর্যন্ত সেই সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২২। এই পরিস্থিতিতে দুই সপ্তাহ আগে বন্দীদের সঙ্গে স্বজনদের সাক্ষাৎ বন্ধ করে দিয়েছে কারা কর্তৃপক্ষ। আর আক্রান্ত ২২ বন্দী ও কারারক্ষী এখন তিনটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।কারা অধিদপ্তরের এই কর্মকর্তা  বলেন, গত মাসে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের এক বন্দী ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় করোনা আক্রান্ত হন। তাঁর পাহারায় থাকা ১১ কারারক্ষীর করোনা শনাক্ত হয়। পরে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে ১ জন বন্দী ও ৯ জন কারারক্ষী আক্রান্ত হন। তাঁরা মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, মিরপুর মেটার্নিটি ও ঢাকার অদূরের কেরানীগঞ্জের জিনজিরার ২০ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।কারা অধিদপ্তর সুত্রে জানা যায়, দেশের ৬৮ কারাগারের প্রতিটি ওয়ার্ড ও সেলে প্রতিদিন জীবাণুনাশক ওষুধ ছিটানো হচ্ছে। স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে। বিশেষ প্রয়োজনে বন্দীদের মাস্ক পরানো হচ্ছে। তবে, করোনা পরিস্থিতিতে বন্দীদের সংখ্যা কমে গেছে। গতকাল পর্যন্ত ৬৮ কারাগারে বন্দী ছিলেন ৮৮ হাজার ৭৫৪ জন। সুত্র আরও জানান, প্রতিটি কারাগারে আসা নতুন বন্দীদের জন্য ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে রাখা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। সব কারাগারে কিছু ওয়ার্ড ও সেল খালি করে কোয়ারেন্টিনের জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে। এখন ৭৬ জন বন্দী ও কারারক্ষী কোয়ারেন্টিনে আছেন।