শনিবার ২৮শে নভেম্বর, ২০২০ ইং ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

আসুন সবাই মিলে করোনার মতো ডেঙ্গুকেও মোকাবিলা করি ———— মেয়র আতিকুল ইসলাম

আপডেটঃ ৭:০৮ অপরাহ্ণ | মে ০৭, ২০২০

এস,এম,মনির হোসেন জীবন -: ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) নির্বাচিত মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেছেন, আসুন সবাই মিলে করোনার মতো ডেঙ্গুকেও আমরা মোকাবিলা করি।মেয়র বলেন, আগামী ১৬ মে থেকে ঢাকা নগরবাসির প্রত্যেকটি বাড়ি বাড়ি গিয়ে চিরুনী অভিযান চালানো হবে। সিটি করপোরেশন আপনাদের শত্রু না। বন্ধু হিসেবে, মিত্র হিসেবে আপনাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে চেক করবো। আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর বনানী বিদ্যানিকেতন স্কুল অ্যান্ড কলেজ মাঠে পরিবেশ অধিদফতরের উদ্যোগে করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত প্রায় ৬ শতাধিক কর্মহীন অসহায় মানুষের মধ্যে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠান শেষে গনমাধ্যম কর্মীদের সাথে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।  মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, দেশে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) এ বর্তমান পরিস্থিতে আমাদের জীবন ও জীবিকা থামিয়ে রাখা যাবে না। করোনাকে ম্যানেজ করেই আমাদেরকে সামনে দিকে এগিয়ে যেতে হবে।তিনি নগরবাসির উদ্দেশে বলেন, মাস্ক আমাদের পরতেই হবে। অযথা ঘোরাঘুরি করতে পারবেন না। কোথাও আড্ডা দিতে পারবেন না। যেখানেই যাবেন, নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখতে হবে।করোনাকে জয় করে আমাদেরকে এগিয়ে যেতে হবে উল্লেখ করে আতিকুল ইসলাম বলেন, আমাদের জীবন ও জীবিকা থামিয়ে রাখা যাবে না। জীবিকা যেমন চলতে হবে, তেমনি আমাদের সুরক্ষা রেখে সব কাজ করতে হবে। কোন ধরনের গুজবে কান দেওয়া যাবে না।আতিকুল ইসলাম বলেন, বর্তমানে গ্লোবাল ওয়ার্মিংয়ের কারণে কিন্তু এডিশ মশার সমস্যাটা এসেছে। উন্নয়নশীল দেশ যারা আছে, তাদের মধ্যে আমাদের যে কন্ট্রাকশনের কাজ হচ্ছে, বাসা-বাড়ি, মেট্রোরেল থেকে শুরু করে যেসব কনস্ট্রাকশন হচ্ছে, আমি সবাইকে অনুরোধ করবো, কোথাও যেন পানি জমে না থাকে।ঢাকা নগরবাসির উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, জমে থাকা পানিতেই জন্ম নিচ্ছে এডিস মশা। তাই আমাদের স্লোগান দরকার-তিন দিনে একদিন, জমা পানি ফেলে দিন। আসুন আমরা নিজেদের আঙ্গিণা পরিষ্কার করি।করোনায় বন্ধ প্রতিষ্ঠানগুলোর মালিকদের উদ্দ্যেশে আতিকুল ইসলাম বলেন, প্রতিষ্ঠানগুলো পর্যায়ক্রমে খুলে দিয়ে সেগুলো আপনারা পরিষ্কার ও পরিচছন্ন রাখুন।গনমাধ্যম কর্মীদের এক প্রশ্নের জবাবে মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, আমাদের চ্যালেঞ্জ নিয়ে কাজ করতে হবে। আমরা ঘরে বসে থাকতে পারবো না। আমাদেরকে এগিয়ে যেতে হবে।পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন খাদ্যসামগ্রি বিতরণকালে গনমাধ্যমকে বলেন, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে কর্মহীন-অসহায় জনগণের মাঝে পর্যাপ্ত খাদ্যসামগ্রী সরবরাহের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার সম্ভাব্য সবকিছু করছে। তিনি বলেন, চাল, ডাল, আলু, তেলসহ অন্যান্য নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য জনগণের কাছে পৌঁছে দেয়ার সরকারের এই মানবিক কার্যক্রম চলমান থাকবে।মন্ত্রী বলেন, বৈশ্বিক মহামারি করোনা ও পবিত্র রমজান মাস একই সঙ্গে চলমান থাকায় অসহায় মানুষকে বেশি করে সাহায্য করা প্রয়োজন।ঢাকার অসহায় মানুষের প্রয়োজনে পরিবেশ মন্ত্রণালয়ের পক্ষে এ ধরনের সাহায্য চলমান থাকবে।ত্রাণ বিতরণকালে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী শাহাব উদ্দিন,ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম ও  পরিবেশ অধিদফতরের মহাপরিচালক ড. এ কে এম রফিক আহাম্মদ সহ অন্যান্যরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।