শুক্রবার ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

রাজধানীতে হাসপাতাল দালাল চক্রের ১০ সদস্য আটক : ২২ লাখ টাকা জরিমানা ও কারাদণ্ড দিয়েছেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত…

আপডেটঃ ৪:১৯ অপরাহ্ণ | মে ১৪, ২০২০

এস,এম,মনির হোসেন জীবন : জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠানে (পঙ্গু হাসপাতাল) ভর্তি হওয়া বা চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের ভুল বুঝিয়ে এবং মিথ্যে তথ্য দিয়ে ভাগিয়ে নিতো দালাল চক্রের ১০জন সক্রিয় সদস্যকে আটক করেছে এলিট ফোর্স  র‌্যাব-২ এর সদস্যরা। এলিট ফোর্স র‌্যাব-২ এর এডিশনাল এসপি মো: মনিরুজ্জামান আজ বৃহস্পতিবার  এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।তিনি বলেন, বুধবার দুপুরের পর থেকে রাত পর্যন্ত রাজধানীর মোহাম্মদপুর কলেজ গেট এলাকায় প্রাইম অর্থোপেডিক ও জেনারেল হাসপাতাল অ্যান্ড ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিযান চালিয়ে এই দালাল চক্রের ১০জন সদস্যকে আটক করা হয়। তাদের মধ্যে মধ্যে একজনকে একবছর, ৩ জনকে নয় মাস ও বাকিদের তিন মাস করে জেল দিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এলিট ফোর্স র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম এই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।র‌্যাবের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, হাসপাতালের কিছু চিকিৎসক ও দালালদের যোগসাজশে পঙ্গু হাসপাতাল থেকে দুজন রোগীকে ভাগিয়ে নিয়ে প্রাইম হাসপাতালে ভর্তি করানোর সময় হাতেনাতে ১০ জনকে আটক করেছে র‌্যাব-২।এছাড়া ২২ লাখ টাকা জরিমানা ও কারাদণ্ড দিয়েছেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত । বাকীদের জরিমানা করে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। এডিশনাল এসপি মো: মনিরুজ্জামান  আরও বলেন, তারা রোগীর স্বজনদের কাছ থেকে নানা অজুহাতে টাকা আদায় করতো। এভাবেই তারা এ অপকর্ম করে আসছিল। এই প্রতারণার সঙ্গে জড়িতদের আটকে অভিযান অব্যাহত আছে।এদিকে, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম গনমাধ্যমকে বলেন,সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে রাজধানীর কলেজ গেট এলাকায় প্রাইম অর্থোপেডিক ও জেনারেল হাসপাতাল অ্যান্ড ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক সেন্টারে  দালাল চক্রের সদস্যদের ধরতে অভিযান চালিয়ে দালাল চক্রের ১০জনকে আটক করা হয়।তিনি আরও বলেন, সুস্থ হওয়ার পরিবর্তে রোগীর অবস্থা আরও খারাপ হয়ে গেছে। একজন রোগী বাম পায়ের আঘাত নিয়ে ভর্তি হলে প্রথমে তার বাম পা এবং ডান পায়ের টিস্যু নেওয়ার কারণে পরবর্তীতে ডান পা কেটে ফেলা হয়।