রবিবার ২৯শে নভেম্বর, ২০২০ ইং ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

পূর্বধলায় বিদ্যুৎস্পর্শে বাবা ও ছেলের মৃত্যু

আপডেটঃ ২:২৬ অপরাহ্ণ | জুন ১৮, ২০২০

পূর্বধলা(নেত্রকোনা )প্রতিনিধি: নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার গোহালাকান্দা ইউনিয়নের শ্যামগঞ্জ বাজার সংলগ্ন জালশুকা গ্রামে বুধবার ভোরে নিজের ফিসারীতে কাজ করতে গিয়ে সমর আলী (৬০) ও ছেলে ময়মনসিংহ আনন্দ মোহন বিশ্ববিদ্যালয়ের রাস্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী পাপ্পু(২৫) বিদ্যুৎস্পর্শে মারা গেছেন। বাবা ও ছেলের মৃত্যুতে পরিবারে ও এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।
পুলিশ ও স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, জেলার পূর্বধলার শ্যামগঞ্জ বাজার সংলগ্ন জালশুকা গ্রামে বুধবার ভোরে সমর আলী বাড়ির অদূরে নিজের ফিসারীর মাছ ধরার জন্য পানি সেচ দিতে যান। এ সময় বিদ্যুতের মোটরের ছেড়া তারে জড়িয়ে সমর আলী মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। বিষয়টি টের পেয়ে ছেলে পাপ্পু বাবাকে বাঁচাতে এগিয়ে যায়। এ সময় সেও বিদ্যুৎস্পর্শে ঘটনাস্থলেই মারা যায়। সকাল হয়ে গেলেও বাবা ও ছেলে বাড়ি না ফেরায় সমর আলীর ফিরোজা বেগম মেয়েকে নিয়ে ফিসারীর কাছে যান এবং স্বামী ও ছেলেকে পড়ে থাকতে দেখেন। তাদের ডাক চিৎকারে এলাকাবাসী সমর আলী ও পাপ্পুকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। কর্তব্যরত চিকিৎসক উভয়কে মৃত ঘোষণা করেন। বাবা ও ছেলের মৃত্যুর বিষয়টি জানাজানি হলে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।শ্যামগঞ্জ পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মো. এনামুল হক বাবা ও ছেলের বিদ্যুৎস্পর্শে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।