মঙ্গলবার ১৯শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং ৫ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

দেশে ফিরলেন ভিয়েতনামে আটকে পড়া ১১ বাংলাদেশি, কায়রোর উদ্দেশে দেশ ত্যাগ করেছেন ১৪০ বাংলাদেশি…

আপডেটঃ ৬:৫৩ অপরাহ্ণ | জুলাই ০৩, ২০২০

এস,এম,মনির হোসেন জীবন : বিশ্বব্যাপী মহামারী করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) প্রেক্ষাপটে ভিয়েতনামে আটকে পড়া ১১ জন বাংলাদেশি নাগরিক আজ শুক্রবার সকালে ভিয়েত জেট এয়ারলাইন্সের একটি বিশেষ ফ্লাইট যুগে তারা দেশে ফিরছেন। অপর দিকে, আজ শুক্রবার সকালে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের পৃথক একটি ফ্লাইটে মিসরের কায়রোর উদ্দেশে দেশ ত্যাগ করেছেন ১৪০ বাংলাদেশি নাগরিক।ঢাকা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কর্মরত এক উর্ধ্বতন কর্মকর্তা আজ গনমাধ্যমকে দেশ ত্যাগের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।আজ শুক্রবার ভিয়েতনামের হ্যানয়  বাংলাদেশ দূতাবাস এর এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে গনমাধ্যমকে এ তথ্য জানান।এতে উল্লেখ করা হয়, বাংলাদেশ থেকে ভিয়েতনামের নাগরিকদের ফিরিয়ে আনার জন্য ভিয়েতনাম পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং ঢাকার ভিয়েতনাম দূতাবাস এই বিশেষ ফ্লাইটের আয়োজন করে। বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও ভিয়েতনামে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের অনুরোধে ভিয়েতনাম সরকার আটকে পড়া বাংলাদেশিদের ফিরিয়ে দিতে সম্মত হয়।এতে আরও বলা হয়, আটকে পড়া নাগরিকরা আজ শুক্রবার বিকেলে দেশে ফিরবেন বলে আশা করা হচেছ। ফেরত আসা বাংলাদেশিদের মধ্যে দু’জন ভিয়েতনামে কর্মরত ছিলেন। আর বাকি ৯ জন ভিয়েতনামে মিথ্যা চাকরির প্রতারণার শিকার হয়ে সেখানে গিয়েছিলেন।ভিয়েতনামে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সামিনা নাজ ও বাংলাদেশ দূতাবাস হ্যানয়ের কর্মকর্তারা প্রত্যাবাসন সংক্রান্ত সার্বিক সহযোগিতা করেছেন। এসময় তিনি বিমানবন্দরে উপস্থিত থেকে ১১জন বাংলাদেশিদের বিদায় জানান।উল্লেখ্য, করোনার কারণে ভারত, সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, মালদ্বীপ,মিসরের কায়রোসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে আটকে থাকা বাংলাদেশিদের বিশেষ ফ্লাইটে ফিরিয়ে আনছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। এছাড়া করোনার কারণে দেশে আটকে পড়া প্রবাসীদেরও কর্মস্থলে ফেরাতে বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনা করছে রাষ্ট্রীয় এ সংস্থাটি।