সোমবার ১৮ই জানুয়ারি, ২০২১ ইং ৪ঠা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

কোরবানির পশুর হাটকে টার্গেট করে মলম পার্টি সংঘবদ্ধ চক্রের সদস্যরা সক্রিয় হয়ে উঠেছে-প্রেসব্রিফিংয়ে সিআইডি…

আপডেটঃ ১০:১১ অপরাহ্ণ | জুলাই ২০, ২০২০

এস,এম,মনির হোসেন জীবন : রাজধানীতে কোরবানির পশুর হাটকে টার্গেট করে  মলম পার্টি সংঘবদ্ধ চক্রের সদস্যরা সক্রিয় হয়ে উঠেছে। আজ ভোরে এ চক্রের ৪জন সদস্যকে বাড্ডা থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। এবিষয়ে আজ সোমবার  দুপুরে রাজধানীর মালিবাগে সিআইডি’র প্রধান কার্যালয়ে প্রেসব্রিফিংয়ে বিশেষ পুলিশ সুপার (এসএস) মোহাম্মদ কামরুজ্জামান এ তথ্য জানান।সিআইডির সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা সিআইডির ঢাকা মেট্রো দক্ষিণের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জীবন কান্তি সরকার এবং অর্গানাইজ ক্রাইমের জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার জিসানুল হকসহ অন্যান্য সিআইডির কর্মকর্তারা এসময় উপস্থিত ছিলেন।প্রেসব্রিফিংয়ে  মোহাম্মদ কামরুজ্জামান বলেন, আজ ভোরে মলম পার্টির এই চক্রের চার সদস্য জনকে রাজধানীর বাড্ডা এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছে সিআইডির ঢাকা মেট্রোর দক্ষণ টিম। তারা হলো- মাসুদ (২৫), মামুন হোসেন ওরফে সাত্তার (৩৫), সুমন ওরফে মুসা (২৬) ও সুমন (৩৬)। তাদের কাছ থেকে একটি প্রাইভেটকার, চাপাতি, ছুরি, রশি, গামছা ও নেশা জাতীয় ঘুমের ওষুধ উদ্ধার করা হয়েছে।প্রেসব্রিফিংয়ে বিশেষ পুলিশ সুপার মোহাম্মদ কামরুজ্জামান সাংবাদিকদেরকে বলেন, রাজধানীর কোরবানির পশুর হাটকে টার্গেট করে মলম পার্টির চক্রগুলো সক্রিয় হওয়ার চেষ্টা করছে। এরা সিএনজি চালিত অটোরিকশা চালক, যাত্রী ও পথচারীদের টার্গেট করে কৌশলে চোখে বিষাক্ত মলম লাগিয়ে বা ঘুমের ওষুধ খাইয়ে সবকিছু কেড়ে নিয়ে তাদের নির্জন স্থানে ফেলে দেয়।তিনি বলেন, এ বিষাক্ত মলমের প্রভাবে মানুষের চোখ নষ্ট হয়ে যায় এমনকি ভুক্তভোগীর মৃত্যু পর্যন্ত হয়। গ্রেফতারকৃতরা দীর্ঘদিন ধরে ঢাকাসহ আশপাশের এলাকায় একটি প্রাইভেটকার (নম্বর-ঢাকা মেট্রো ১৩-১২৬৮) ব্যবহার করে সিএনজি অটোরিকশার যাত্রীদের থামিয়ে অথবা চালককে বিষাক্ত মলম লাগিয়ে টাকা পয়সা ছিনিয়ে নিতো। এই চক্রটি কোরবানির হাটকে কেন্দ্র করে সক্রিয় হওয়ার চেষ্টা করেছিল বলেও জানান সিআইডির এই কর্মকর্তা।