সোমবার ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

পূবাইলে বন্ধুদের সাথে পার্কে ঘুরতে এসে গণধর্ষনের শিকার কিশোরী-আটক-৩

আপডেটঃ ১২:৪৩ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ১২, ২০২০

মোঃ রাজীব হোসেন: গাজীপুর মহানগরের ৩৯নং ওয়ার্ডের হায়দরাবাদ এলাকায় কিশোরীকে ধর্ষনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। থানাসূত্রে জানা যায় যে, গত ১০/০৮/২০২০ইং তারিখে বিকাল অনুমান ৪:০০ ঘটিকার সময় ভিকটিমের পূর্ব পরিচিত মতিউর, পলাশ, ফারুক, আলমগীর, নাসিরদের সাথে সাবরিনা পার্কে ঘুরতে যায়। ঘুরা শেষ করে সন্ধ্যা হলে বাড়ীতে যাওয়ার জন্য গাড়ীর জন্য অপেক্ষা করলে পূর্ব পরিচিত বন্ধু পলাশ, ফারুক ভিকটিমকে বাড়ীতে পৌছে দিবে বলে অটোরিকসায় উঠায়। ভিকটিম কিশোরী (১৭) বন্ধুদের সাথে কিছুদুর যাওয়ার পরে পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী হায়দরাবাদ ছাবের মার্কেটের নিকট ব্রিজের একটু সামনে পৌছালে আরও তিনজন একত্রিত হয়। পাঁচ বন্ধুরা ভিকটিমকে কোনো কথা বলতে এবং ডাক চিৎকার দিলে মেরে ফেলার হুমকী দেয়। ভিকটিমকে জোর পূর্বক টানা হেচড়া করে নির্জন কলাবাগানে নিয়ে পাঁচ বন্ধু মিলে পালাক্রমে ধর্ষন করে। পূবাইল থানার অফিসার ইনচার্জ নাজমুল হক ভূইয়া জানান যে, পাঁচজনকে আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। অভিযান চালিয়ে তিনজনকে আটক করা হয়েছে। আটকৃতরা হলো ১) মতিউর রহমান গাজীপুর জেলার পূবাইল থানার হায়দরাবাদ এলাকার মৃত সেকান্দর আলীর ছেলে। ২) পলাশ গাজীপুর জেলার পূবাইল থানার হায়দরাবাদ এলাকার আমিরুল ইসলামের ছেলে। ৩) ফারুক হোসেন গাজীপুর জেলার পূবাইল থানার হায়দরাবাদ এলাকার রুপচাঁন মিয়ার ছেলে। পলাতক আলামগীর হোসেন ও নাসির হোসেন দুইজনকে আটকের চেষ্টা চলছে। আসামীদেরকে গাজীপুর কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে। ভিকটিম নিজে বাদী হয়ে পূবাইল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছে।