মঙ্গলবার ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১লা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

কাশিমপুর থানা লতিফপুরে সন্ত্রাসীদের তোপের মুখে নিপিড়ীত জনতা ও গণমাধ্যমকর্মী..

আপডেটঃ ১২:৫৩ অপরাহ্ণ | ডিসেম্বর ১৩, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার –:কাশিমপুর থানার দুই নং ওয়ার্ডের লতিফপুরে।সন্ত্রাসীদের তোপের মুখে অসহায় হতদরিদ্র মেহনতী মানুষ।গরীবের বসতভিটা দখলের পায়তারা করছেন মনির বাহিনী।এই মর্মে ২৪/১১/২০২০ কাশিপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বরাবর ও গাজিপুর পুলিশ সুপার বরাবর মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রী বরাবর।র্্যাব দপ্তর বরাবর দুই নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বরাবর এমনি করে ছয় ছয়টি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করেন যে। মনির বাহিনী সন্রাসী বাহিনীদের সাথে নিয়ে প্রতিনিয়ত হুমকি প্রদান করছেন লতিফপুরের দুই নং ওয়ার্ডে বসবাসরত।শামীম গং ও গরীব অসহায় হতদরিদ্র মেহনতী পরিবারের উপর।
তাদের গৃহীত ঘর বাড়ি আসবাবপত্র সরিয়ে নিতে হুমকি প্রদর্শন করেন মনির বাহিনী।লিখিত অভিযোগ দায়ের করার পরে,গণমাধ্যমকর্মীরা দৈনিক ভোরের ধ্বনী ও সময়ের কন্ঠ পত্রিকায় এবং অনলাইন পোট্রালে সংবাদ প্রকাশ করেন।তারই পরিপেক্ষিতে মনির বাহিনী ০২/১২/২০২০ বুধবার সন্ধা থেকে বাদীপক্ষকে ও গণমাধ্যমকর্মীদেরকে ফোনে এবং ফেইসবুক পেজে ও সরাসরি হুমকি প্রদান করে চলেছেন।

এমনি করে প্রত্যেকটা অসহায় হতদরিদ্র পরিবারের উপর।নির্মম নির্যাতন নেমে আসে প্রত্যেকটা দিন প্রত্যেকটা সময়।মনির বাহিনীর হাত থেকে রক্ষা পেতে গ্রাম মহল্লার অগনিত মানুষ।গনস্বাক্ষর করেছেন।উক্ত স্বাক্ষরীত পেপার্স কাউন্সিলর মোনতাজ উদ্দিন সহ সকল দপ্তরে প্রেরন করেন। তাদের আবেদন হলো বিনা নোটিশে বাড়ি ঘর ভাংচুর চালায় মনির বাহিনী।পূর্ব পুরুষের পৈত্রিক সম্পদ বসত বাড়ি ভেঙে গুড়িয়ে দিয়েছেন অসহায় হতদরিদ্রদের মনের আশা স্বপ্ন।

মনির বাহিনীর হাত থেকে রক্ষা পেতে,অসহায় নিপিড়ীত জনতার একমাত্র আশ্রয়স্থল গৃহ বাড়ি উদ্ধার করতে। অভিযোগের বিষয় সমুহ তদন্ত পর্যবেক্ষন করে দোষীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির জন্য প্রশাসনের আশুহস্থক্ষেপ কামনা করেন।