মঙ্গলবার ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১লা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

আখ মাড়াই স্থগিতের সিদ্ধান্ত বাতিল করে মিল চালুর দাবিতে গাইবান্ধায় বিক্ষোভ …

আপডেটঃ ৭:০৮ অপরাহ্ণ | ডিসেম্বর ১৯, ২০২০

গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি: আখ মাড়াই স্থগিতের সিদ্ধান্ত বাতিল করে মিল চালুর দাবিতে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করছেন রংপুর চিনিকলের শ্রমিক ও আখচাষীরা। ১৯ ডিসেম্বর শনিবার সকাল ৯টার দিকে রাস্তায় টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ-মহিমাগঞ্জ সড়কে দুই ঘন্টাব্যাপী সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন শ্রমিক ও আখচাষীরা। শত শত শ্রমিক-চাষীরা এতে অংশ নিয়ে বিক্ষোভ করেন। এ সময় মিলের সাথে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িত কয়েক হাজার শ্রমিক কর্মচারীর মানবেতর জীবন যাপন করছে বলে দাবি করে স্লোগান দিতে থাকেন তারা। অবিলম্বে রংপুর চিনিকল চালু না করলে কঠোর কর্মসূচির ঘোষণার হুশিয়ার দেন শ্রমিক নেতারা। স¤প্রতি চিনি ও খাদ্য শিল্প করপোরেশন থেকে আখ মাড়াই স্থগিত করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত বাতিল করে অবিলম্বে মিলের চাকা সচল করার দাবি জানান তারা। অবরোধ চলাকালে রংপুর চিনিকল শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি আবু সুফিয়ান সুজা, সাধারণ স¤পাদক মোস্তাফিজুর রহমান দুলাল, আখচাষী কল্যাণ গ্রুপের সভাপতি জিন্নাত আলী প্রধান, ইক্ষু উন্নয়ণ কর্মী সংসদের স¤পাদক শাহজাহান আলী প্রমুখ বক্তব্য প্রদান করেন। বক্তারা অবিলম্বে সকল চিনিকল আধুনিকায়নের মাধ্যমে চালানো ও দোষীদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানান। অন্যথায় বৃহৎ কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। গত ২ ডিসেম্বর থেকে অব্যাহতভাবে আন্দোলন চালিয়ে আসছেন তারা। লোকসানের অজুহাতে গাইবান্ধা জেলার কৃষিভিত্তিক একমাত্র ভারিশিল্প কারখানা গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার মহিমাগঞ্জস্থ রংপুর চিনিকলসহ ৬টি চিনিকলে আখমাড়াই বন্ধ রাখার প্রতিবাদে ২ ডিসেম্বর থেকে মহিমাগঞ্জে ব্যাপক বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন সহস্রাধিক আখচাষী ও শ্রমিক-কর্মচারীরা। বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্যশিল্প সংস্থার সদর দপ্তরের আওতাধীন ১৫টি চিনিকলের মধ্যে ২০২০-২০২১ মৌসুমে ৬টিতে মাড়াই বন্ধ রেখে ৯টি চিনিকলে আখমাড়াই করার নির্দেশনা সম্বলিত একটি চিঠি পাওয়ার পর বিক্ষোভে ফেটে পড়েন আখচাষী ও শ্রমিক-কর্মচারীরা। ওই দিনে সকাল সাড়ে ৯টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত আখচাষী ও শ্রমিক-কর্মচারীরা গোবিন্দগঞ্জ-মহিমাগঞ্জ সড়কের চিনিকলের সামনের কয়েকটি স্থানে মোটরের টায়ার জালিয়ে সড়ক অবরোধ করে রাখেন।