রবিবার ১৭ই জানুয়ারি, ২০২১ ইং ৩রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

শেয়ারবাজারে এক মাসে সর্বোচ্চ লেনদেন…

আপডেটঃ ১:৪৩ অপরাহ্ণ | ডিসেম্বর ২৪, ২০২০

বিশেষ প্রতিনিধি:- টানা তিন কার্যদিবস পতনের পর সোমবার প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সবকটি মূল্য সূচকের বড় উত্থান হয়েছে।
মূল্য সূচকের উত্থান হলেও ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া যে কয়টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে, কমেছে তার চেয়ে বেশি। তবে লেনদেনের পরিমাণ বড় অঙ্কে বেড়েছে। এতে এক মাসের মধ্যে ডিএসইতে সর্বোচ্চ লেনদেন হয়েছে।
বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, আগের দিনের পতনের ধারাবাহিকতা থেকে বের হয়ে এসে সোমবার সকালেই সূচকের তীর ওপরে উঠতে থাকে। লেনদেন শুরুর মাত্র আধা ঘন্টার মধ্যে সূচক ২০ পয়েন্ট বেড়ে যায়। এরপরে সূচক বাড়ার গতি আরও বেড়ে যায়। সেখানে প্রথম ঘণ্টার লেনদেনেই ডিএসইতে তিনশ কোটি টাকার লেনদেন হয়ে যায়। সারাদিনই সূচক বাড়তে থাকে। নতুন কোম্পানি ক্রিস্টাল ইন্স্যুরেন্সের লেনদেন শুরু হলেও লেনদেন এবং দরবৃদ্ধিতে প্রাধান্য পেয়েছে বে´িমকো লিমিটেড। বে´িমকো, বে´িমকো ফার্মা, পিপলস ইন্স্যুরেন্স এবং ওরিয়ন ফার্মার মতো কোম্পানিগুলো দরবৃদ্ধিসহ বড় ধরনের লেনদেন করেছে।
সারাদিনই সূচকের এই ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা অব্যাহত থাকার পর ডিএসইর প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ৪০ পয়েন্ট বেড়ে ৫ হাজার ১১৫ পয়েন্টে উঠে এসেছে। ডিএসইর অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই শরিয়াহ্ আগের দিনের তুলনায় ১২ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ১৮২ পয়েন্টে অবস্থান করছে। আর ডিএসই-৩০ আগের দিনের তুলনায় ২৪ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৮১৮ পয়েন্টে উঠে এসেছে।
মূল্য সূচকের এই উত্থানের দিনে ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া ১৩০ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দাম বেড়েছে। এর বিপরীতে দাম কমেছে ১৪৬টির এবং ৮০টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।
বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ১৩৭ কোটি ৩৪ লাখ টাকা। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয় ৮৬০ কোটি ৩২ লাখ টাকা। সেই হিসাবে আগের দিনের তুলনায় লেনদেন বেড়েছে ২৭৭ কোটি ২ লাখ টাকা।
এর আগে গত ১৫ নবেম্বর ডিএসইতে ১ হাজার ১৯৭ কোটি ৭২ লাখ টাকার লেনদেন হয়। এর পর আর বাজারটিতে ১১শ কোটি টাকার লেনদেন হয়নি। সেই হিসাবে সোমবার এক মাস ৬ দিনের মধ্যে ডিএসইতে সর্বোচ্চ লেনদেন হয়েছে।
ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে বেক্সিমকো শেয়ার। কোম্পানিটির ৮৯ কোটি ৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা বেক্সিমকো ফার্মার ৫৬ কোটি ৬৬ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। ২৯ কোটি ৫৭ লাখ টাকার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে পিপলস ইন্স্যুরেন্স।
অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্য সূচক সিএএসপিআই বেড়েছে ১৪৪ পয়েন্ট। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ২৮ কোটি ৬৩ লাখ টাকা। লেনদেনে অংশ নেয়া ২৬১টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১১৭টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ৯৩টির এবং ৫১টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।