মঙ্গলবার ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১লা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

যত প্রভাবশালী হোক না কেন খাল দখলদার কেউ ছাড় পাবে না- মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলাম

আপডেটঃ ৬:০৮ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ০৫, ২০২১

এস,এম,মনির হোসেন জীবন : ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলাম বলেছেন,যে যত প্রভাবশালী লোক হোক না কেন, খাল দখলদার কেউ ছাড় পাবে না। রাজধানীর ইব্রাহিমপুর খাল পাড়ের সব বহুতল ভবন ভেঙে দেওয়া হবে তিনি হুশিয়ারী দেন।সোমবার বেলা ১১টার দিকে রাজধানীর ইব্রাহিমপুর এলাকায় ইব্রাহিমপুর খাল পরিষ্কারকরণ ও খালের দুই পাড় থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান পরিদর্শনকালে মেয়র এসব কথা বলেন।পরিদর্শনকালে অন্যান্যের মধ্যে ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সেলিম রেজা, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা কমডোর এম সাইদুর রহমান, প্রধান প্রকৌশলী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আমিরুল ইসলাম, ঢাকা জেলা প্রশাসক মোঃ শহীদুল ইসলাম, ১৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ মতিউর রহমান মোল্লা, ১৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ হুমায়ুন রশীদ জনি উপস্থিত ছিলেন।মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, ওয়াসার কাছ থেকে খালের দায়িত্ব হাতে পাওয়ার পরই খালের অবৈধ দখল উচ্ছেদে আমরা কাজ শুরু করেছি। যত প্রভাবশালী হোক না কেন খাল দখলদার কেউ ছাড় পাবে না। খাল পাড়ের সব বহুতল ভবন ভেঙে দেওয়া হবে।

মানচিত্র অনুযায়ী খালের জায়গায় যেসব অবৈধ স্থাপনা আছে, তা একতলা হোক বা দশ তলা হোক, ভেঙে ফেলা হবে। এই উচ্ছেদ অভিযান অব্যাহত থাকবে। পর্যায়ক্রমে অন্যান্য খালেও এই অভিযান চালানো হবে।মেয়র আরো বলেন, সিএস জরিপ অনুসারে অনতিবিলম্বে ঢাকা শহরের খালের সীমানা চিহ্নিত করে খালের দুই পাড়ের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ, পুনঃখনন করে পানি ধারণের ক্ষমতা বৃদ্ধি, পাড় বাঁধাই করে সবুজায়ন, ওয়াকওয়ে (হাঁটার পথ) ও সাইকেল লেন তৈরির করা হবে।সোমবার বেলা এগারটা থেকে বিকাল তিনটা পর্যন্ত রাজধানীর ইব্রাহিমপুর এলাকায় ইব্রাহিমপুর খাল পরিষ্কারকরণ ও খালের দুই পাড় থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনকালে ইব্রাহিমপুর বাজার খাল পাড়ের কালভার্টের দুই পাশে অবৈধভাবে খালের উপর নির্মিত একটি তিনতলা ভবনসহ কয়েকটি টিনশেড দোকান উচ্ছেদ করা হয়।