মঙ্গলবার ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১লা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

দৌলতখান ইউপি সদস্য মিলনের বিরুদ্ধে আইনের ব্যবস্থা নেয়ার দাবি এলাকাবাসীর..

আপডেটঃ ৬:১৬ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ০৫, ২০২১

মোঃ ফরিদুল ইসলাম : ভোলার দৌলতখান উপজেলার উত্তর জয়নগর ইউনিয়ন মধ্য জয়নগর ৭ নং ওয়ার্ড মোহাম্মদ নাসির, নিজেও শারীরিকভাবে অসুস্থ এবং তার একটি ছেলে প্রতিবন্ধী (৭-৮) বছর ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান থেকে শুরু করে, মেম্বার মিলনের কাছে ৫ বছর যাবত একটি প্রতিবন্ধী বার্তার কার্ড জন্য ঘুরেও তার ভাগ্য জোটেনি একটি প্রতিবন্ধী ভাতার কার্ড। 
সরজমিনে গিয়ে জানা যায় নাসির মিয়াকে সরকারি ঘর দেবে বলে মেম্বার মিলন ভোটার আইডি কার্ড ছবি সহ জমা এবং খরচ বাবদ ১২০০ টাকা দিও সরকারি ঘর পাইনি বলে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী নাসির। 
ইউপি সদস্য মিলনকে ভুক্তভোগী নাসির জীবন কাহিনী বলেও তার ভাগ্যে জোটেনি একটি প্রতিবন্ধী কার্ড, ভিক্ষা ছাড়া দুই বেলা দুই মুঠো ভাত জোটে না তার ভাগ্যে, এই নাসিরের ব্যাপারে এলাকাবাসী নুর ইসলাম, কামাল, থেকে জানা যায় প্রতিবন্ধী ছেলেকে নিয়ে রাস্তায় রাস্তায় ভিক্ষা করে যাবতীয় জীবন টা চালিয়ে আসছে, এবং আল্লাহ্ ছাড়া আর কোনো ব্যক্তি নেই ওনাকে সাহায্য করার মত।
উত্তর জয়নগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কী সরকারি বরাদ্দকৃত কিছু পায় না? ওই ইউনিয়নের অধিকাংশ সাধারণ মানুষ কি ইউনিয়ন পরিষদের সুযোগ-সুবিধা থেকে কেনো বঞ্চিত হয়? তাহলে সাধারন জনগন যদি ইউপি সদস্যদের কাছে সরকারি বরাদ্দকৃত কিছুই না পায়, তাদেরকে জনপ্রতিনিধি করা কি লাভ সরকারের এবং জনগণের? এই অভিযোগগুলো সব ভুক্তভোগি সাধারণ জনগণের।
এবং মিলন মেম্বারের অনিয়ম-দুর্নীতির এবং তার বিরুদ্ধে নারী কেলেঙ্কারি সহ ওয়ার্ডের সাধারণ জনগণ মুখ খুললে বিভিন্নভাবে হুমকি ধামকিও মিথ্যা মামলা করে জেলহাজতে পাঠাবে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী সহ সাধারন জনগন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।