রবিবার ১৭ই জানুয়ারি, ২০২১ ইং ৩রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

বদরগঞ্জে বসানো হয়েছে অবৈধ করাত কল, রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার

আপডেটঃ ৩:৫৪ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ১৩, ২০২১

ময়দুল ইসলাম, বদরগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি- রংপুরের বদরগঞ্জে অবৈধ ভাবে বসানো হয়েছে অর্ধশতাধিক করাত কল। যার ফলে প্রতিদিন হারিয়ে যাচ্ছে না প্রজাতির গাছপালা। ঘটছে পরিবেশের নানা ধরনের বিপর্যয়। লাইসেন্স বিহীন এসব করাত কলের মালিদেরকে উপজেলা ফরেস্ট অফিস থেকে লাইসেন্স নেওয়ার জন্য বার বার তাগিদ দেওয়া হলেও তারা আইনের তোয়াক্কা না করে অবাধে কাঠ চোরাইয়ের ব্যবসা করে যাচ্ছে। করাত কল গুলোর উপজেলাকুষি অফিস ও পরিবেশ অধিদপ্তরের নেই কোন ছাড়পত্র ও অনুমোদন। ফলে সরকার এই খাত থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা রাজস্ব হারাচ্ছে। করাত কল মালিকেরা বছরের পর বছর রাজস্ব ফাকি দিয়ে তাদের ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে।

বদরগঞ্জ ফরেস্টার অফিস সুত্রে জানা যায়, এই উপজেলায় লাইসেন্স বিহীন ৬৪টি করাতকল রয়েছে। ব্যাঙ্গের ঠাতার মতো গড়ে উঠা এসব তরাত কলের জন্য প্রতিদিন হাজার হাজার গাছ চেরাই করা হচ্ছে। ফলে পরিবেশের উপর এর প্রভাব পরছে। সরেজমিনে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের করাত কল গুলো ঘুরে দেখলে দেখা যায় সেখানে বিভিন্ন প্রজাতির গাছ ¯ু‘প করে রাখা হয়েছে। বন বিভাগের আইনে বলা পরিস্কার করে বলা আছে স-মিল বা কাঠ মজুত করতে হলে লাইসেন্স থাকতে হবে।
কাচাবাড়ি এলাকার করাত কল মালিক মো. আজাহারুল ইসলাম বলেন আমার করাত কলের লাইসেন্স নাই তবে আমি খুব তারাতারি লাইসেন্স করে নিবো।

এ ব্যাপারে উপজেলা ফরেস্টার মোরশেদ আলম জানান, উপজেলায় ৬৪টি লাইসেন্স বিহীন করাত কল রয়েছে। গত বছর সবকয়ঠি করাত কল মালিকদের কে লাইসেন্স করার জন্য নোটিশ করা হলেও তারা বিষয়টি আমলে নেয়নি।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মেহেদী হাসান বলেন, অবৈধ করাত কল গুলোর খোজ খবর নিয়ে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।