সোমবার ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং ৬ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তি, ১৫ আইনজীবী আটক

আপডেটঃ ১২:৩৭ অপরাহ্ণ | মে ২৪, ২০১৪

নিজস্ব প্রতিবেদক : সুপ্রিম কোর্টের মূল গেটসহ সব প্রবেশদ্বার বন্ধ করে দিয়েছে পুলিশ। শনিবার সকাল থেকে আদালত প্রাঙ্গণে কোনো আইনজীবীকে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না। সব প্রবেশপথে ব্যারিকেড দিয়ে রাখা হয়েছে। সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকনের নেতৃত্বে কয়েকজন আইনজীবী আদালতের ভেতরে অবস্থান করছেন। তবে বাইরে অপেক্ষমাণ আইনজীবীদের সমাবেশস্থলে প্রবেশ করতে দিচ্ছে না পুলিশ। আইনজীবীরা বাধা উপেক্ষা করে স্লোগান দিয়ে জোরপূর্বক ভেতরে প্রবেশ করার চেষ্টা করলে কয়েকজন আইনজীবীর সঙ্গে পুলিশের ধস্তাধস্তি হয়। এ সময় মাজার গেট থেকে ঢাকা আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খোরশেদ আলমসহ ১৫ আইনজীবীকে আটক করে পুলিশ। আটক আইনজীবীদের মধ্যে রয়েছেন অ্যাডভোকেট আতাউর রহমান, শাহজাহান আলী, মাসুদ আহমেদ, মোখলেছ খান, মাহবুবুর রহমান, আনিছুর রহমান, আরিফ আহমেদ, কামরুল হাসান, জহিরুল ইসলাম, মাসুম খন্দকার ও শিল্পী খাতুন। এদিকে, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকট খন্দকার মাহবুব হোসেন মাজার গেটে অবস্থান করছেন। ফোরামের সভাপতি হওয়া সত্ত্বেও তাকে ভেতরে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না বলে অভিযোগ করেন তিনি। তিনি সরকারকে সুষ্ঠুভাবে সমাবেশ করতে দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে আটককৃত আইনজীবীদের ছেড়ে দেওয়ার দাবি করেন। দেশব্যাপী গুম ও খুনের প্রতিবাদে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সমাবেশ শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় শুরু হওয়ার কথা ছিল। এর আগে শুক্রবার রাতে সমাবেশে অনুমতি না থাকার অভিযোগে সমাবেশের সাজসজ্জা চলাকালে বাধা দেয় পুলিশ। পুলিশ অন্যায়ভাবে অনুষ্ঠান বন্ধ করতে চাইছে বলে অভিযোগ করেন ফোরামের নেতারা।তাদের মতে, সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণে সমাবেশ করতে হলে পুলিশ প্রশাসনের কোনো অনুমতি লাগে না। শুধু প্রধান বিচারপতিকে অবগত করতে হয়। সেটি করা হয়েছে বলে জানান তারা। তবে বাধা সত্ত্বেও শেষ পর্যন্ত তারা এ সমাবেশ করতে পারবেন বলে প্রত্যাশা করছেন। সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে। সমাবেশ প্রস্তুতি বন্ধ করা প্রসঙ্গে ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে ডিএমপির রমনা জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) শিবলী নোমান বলেন, সমাবেশের কোনো অনুমতি নেওয়া হয়নি। অনুমতি থাকলে সমাবেশ করতে দেওয়া হবে। সে জন্য এ অনুষ্ঠানের অনুমতি নিতে আয়োজকদের আহ্বান জানান তিনি। তবে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের নেতা সানাউল্লাহ মিয়া জানান, পুলিশের অভিযোগ সঠিক নয়। সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণে সমাবেশ করতে হলে পুলিশ প্রশাসনের কোনো অনুমতি লাগে না। শুধু প্রধান বিচারপতিকে অবগত করতে হয়। সে প্রক্রিয়া অনুসরণ করা হয়েছে।