সোমবার ১০ই মে, ২০২১ ইং ২৭শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Ad

‘নৌকা স্বাধীনতা, উন্নয়ন ও মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের প্রতীক-আলহাজ নজরুল ইসলাম….

আপডেটঃ ১১:১৯ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ২৩, ২০২১

কলারোয়া (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধিঃ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম বলেছেন, নৌকা মার্কা বাংলাদেশের স্বাধীনতা, উন্নয়ন ও মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের প্রতীক। নৌকা মার্কাই বাংলাদেশকে বিশ্ব দরবারে মাথা উঁচু করে চলতে শিখিয়েছে। শুক্রবার বিকালে কলারোয়া সরকারি জিকেএমকে পাইলট হাইস্কুল চত্বরে পৌর আওয়ামীলীগ আয়োজিত নির্বাচনী পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আরও বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা উন্নয়ন ও সততার রোল মডেল হিসেবে বিশ্বের দরবারে পরিচিতি পেয়েছেন। বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশ ও বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে। বিএনপি-জামাতের শাসনামলে বাংলাদেশ সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের আখড়ায় পরিণত হয়েছিল। তারেক রহমান হাওয়া ভবন প্রতিষ্ঠা করে দেশকে ৫ বার দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন বানিয়েছিলেন। শেখ হাসিনা সরকারের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে আগামী ৩০জানুয়ারী পৌরসভা নির্বাচনে নৌকা মার্কা প্রতীকের মাস্টার মনিরুজ্জামান বুলবুলকে বিপুল ভোটে বিজয়ী করার আহ্বান জানান তিনি। প্রধান বক্তার বক্তব্যে জেলা আ.লীগের সহ.সভাপতি ও সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সভাপতি, দৈনিক কালের চিত্র পত্রিকার সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যক্ষ আবু আহমেদ বলেন, ‘নৌকা স্বাধীনতা, গণতন্ত্র, উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির প্রতীক। তাই আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় থাকলে দেশের উন্নয়ন হয়। আর ধানের শীষ খুন, জঙ্গিবাদ, ধর্ষণ ও লুটপাটের প্রতীক। তারা ক্ষমতায় থাকলে, হত্যা, রাহাজানি, চুরি, ডাকাতি, জঙ্গিবাদ, জ্বালাও-পোড়াও করে ছারখার করা হয়। তিনি বলেন, পৌরসভা নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী একজন সৎ নিতিবান ব্যক্তি। আগামী ৩০ তারিখের নির্বাচনে এই পৌরসভায় নৌকা বিজয়ী হলে কলারোয়ার পৌর এলাকার উন্নয়নের অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকবে। একই সাথে নৌকার বিরোধীতাকারীকে আপনারা চিনি রাখুন, মজনু চৌধুরী একজন বিশ^ ঘাতকতাকারী, আ.লীগের মধ্যে থেকে দলকে ক্ষতির দিকে ঢেলে নিয়ে গেছে। আর এই আত্মঘাতী কাজ করার জন্য তাকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়েছে। সে যাতে নৌকার বিরোধীতা করতে না পারে তার জন্য আ.লীগের সকল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের নির্দেশ প্রদান হয়েছে। তার বাড়ীতে সকল দলের সদস্য রয়েছে যা জেলা আ.লীগের কাছে অভিযোগ রয়েছে। সভার সম্মানিত অতিথি জেলা আ.লীগের যুগ্ম সম্পাদক ফিরোজ কামাল শুভ্র বলেন, আগামী ৩০ তারিখ স্বাধীনতার পক্ষ ও বিপক্ষ শক্তির পরীক্ষা। দেশের ও মানুষের ভাগ্যের উন্নয়ন চাইলে স্বাধীনতা পক্ষ শক্তির উত্তীর্ণ হতে হবে। প্রধান শিক্ষক মনিরুজ্জামান বুলবুলকে নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করার মধ্য দিয়েই স্বাধীনতার পক্ষ শক্তি আবারো পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হবে। নৌকার প্রার্থী শিক্ষক মনিরুজ্জামান বুলবুল বলেন, আমি একজন শিক্ষক। স্বতন্ত্র প্রার্থী সাজেদুর রহমান মজনু আমাদের কর্মীদের ভয় দেখিয়ে কোন লাভ নেই। আগামী ৩০ তারিখে ব্যালটের মাধ্যমে এই ভয়ের জবাব দেওয়া হবে। এমনকি এই স্বতন্ত্র¿ প্রার্থী নৌকার বিরোধীতা করছেন। তিনি আওয়ামীলীগনেতা হওয়ার সত্তেও সরাসরি এই কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। এ কারনে দল থেকে তাকে বহিস্কার করা হয়েছে। উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ফিরোজ আহম্মেদ স্বপনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত পথসভা সঞ্চালনা করেন উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা রবিউল আলম মল্লিক রবি। এসময় আরও বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামীলীগের সহ.সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য বি, এম নজরুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী আকতার হোসেন, দৈনিক পত্রদূত পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ও জেলা আওয়ামীলীগের শিক্ষা ও মানব বিষয়ক সম্পাদক লায়লা পারভীন সেঁজুতি, জেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক শেখ হারুন অর রশিদ, জেলা আওয়ামীলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব আরাফাত হোসেন, সাতক্ষীরা সদর আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুর রশিদ, সাধারণ সম্পাদক শাহাজাহান আলি, জেলা আওয়ামীলীগ নেতা শেখ মনিরুল ইসলাম মাসুম, জাতীয় শ্রমিকলীগের সভাপতি সাইফুল করিম সাবু, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল খালেক, কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা অহিদুল ইসলাম সজীব, স্বেচ্ছাসেবক লীগের জেলা সভাপতি মীর মোস্তাক আহমেদ, কলারোয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আলিমুর রহমান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি কাজী আসাদুজ্জামান সাহাজাদা, উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভানেত্রী সহকারী অধ্যাপক সুরাইয়া ইয়াসমিন রত্না, আওয়ামীলীগ নেতা ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল হাসান, ইউপি চেয়ারম্যান শামছুদ্দীন আল মাসুদ বাবু, ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম মনি, উপজেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বেনজির হেলাল, দপ্তর সম্পাদক সাংবাদিক আব্দুর রহমান, পৌর আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, যুবলীগ নেতা শেখ মাসুমুজ্জামান মাসুম, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি শেখ আশিকুর রহমান মুন্না, ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল মাজেদ বিশ^াস, সরদার আনছার আলী, পৌরসভার তুলসীডাঙ্গা ২নং ওয়ার্ড আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক রনজিৎ কুমার ঘোষ, পৌরসভার তুলসীডাঙ্গা ২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী সাহিদুজ্জামান সাঈদ (পানির বোতল), সহ বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানবৃন্দ, আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের শত শত নেতৃবৃন্দ। উল্লেখ্য-জেলা আওয়ামলীগনেতৃবৃন্দ কলারোয়া পৌরসভা নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীকে জয়ী করার আহবান জানান।