মঙ্গলবার ১১ই মে, ২০২১ ইং ২৮শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

রাণীসংকৈলে রাইস ট্রান্সপ্লান্টার যন্ত্রেরমাধ্যমে সমলয় চাষের শুভ উদ্ভোধনে-ডিসি…

আপডেটঃ ১০:২৩ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ২৫, ২০২১

জিয়াউর রহমান -রাণীশংকৈল(ঠাকুরগাঁও)প্রতিনিধি-: ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈল উপজেলার নেকমরদ করনাইট দিঘীয়া গ্রামের ১৪ জন কৃষকদের ৫০ একর জমিতে রাইস ট্রান্সপ্লান্টার প্রণোদনা প্যাকেজ কার্যক্রম উদ্ভোধন করলেন ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক ড. কে এম কামরুজ্জামান। ২৫জানুয়ারি সোমবার উপজেলা কৃষি পূর্ণবাসন বাস্তবায়ন কমিটি ও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের যৌথ আয়োজনে রবি মৌসুমের প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় সমলয় চাষাবাদ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে হাইব্রিড বোরো ধানের চারা রাইস ট্রান্সপ্লান্টার যন্ত্রের মাধ্যমে রোপন কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, উপজেলায় প্রদর্শনীর মাধ্যমে ১৪জন কৃষকের ১৫০বিঘা জমিতে ১২লক্ষ ২১হাজার টাকা ব্যয়ে ধান রোপন সার কীটনাশক থেকে ধান কাটা পর্যন্ত সার্বিক সহযোগিতা করা হবে।

এ সময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল সুলতান জুলকার নাইন কবির স্টিভ’র সভাপতিত্বে উদ্ভোধনী কার্যক্রম অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্হিত ছিলেন জেলা প্রশাসক ড.কে এম কামরুজ্জামান সেলিম। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আফতাব হোসেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শাহরিয়ার আজম মুন্না, উপজেলা কৃষি অফিসার সঞ্জয় দেবনাথ, নেকমরদ ইউপি চেয়ারম্যান এনামুল হক, কৃষি অফিসের বিভিন্ন কর্মকর্তা প্রেসক্লাব সভাপতি ফারুক আহম্মদে, সাংবাদিক ফিরোজ আমিন, সামসুজ্জোহা, বিজয় সহ এলাকার সর্বস্তরের মানুষ ও উপকারভোগী কৃষক কৃষানীগন । উপজেলা কৃষি অফিসার সঞ্জয় দেবনাথ বলেন-আধুনিক যন্ত্রপাতির মাধ্যমে ১৪জন উপকারভোগী কৃষকের মাঝে ৫০একর জমিতে এই প্রণোদনা প্যাকেজের কার্যক্রম শুরু করলো কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর। এ কার্যক্রমটি রংপুর বিভাগের মধ্যে রাইস ট্রান্সপ্লান্টার যন্ত্রের মাধ্যমে এই প্যাকেজটি রাণীশংকৈল উপজেলাতেই সর্বপ্রথম চালু করা হলো। এতে উপজেলার কৃষকরা অনেক লাভবান হবেন। অনুষ্ঠানটির পরিচালনায় ছিলেন উপজেলা উপ সহকারি কৃষি কর্মকর্তা মোঃ সাদেকুল ইসলাম প্রমূখ।