বুধবার ৩রা মার্চ, ২০২১ ইং ১৮ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

রূপগঞ্জের কায়েতপাড়ায় আসন্ন ইউপি নির্বাচনকে ঘীরে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের প্রচরণায় মুখর এলাকা..

আপডেটঃ ৮:০০ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ০৮, ২০২১

ডেস্ক -: রূপগঞ্জের আসন্ন কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে ঘীরে মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রার্থীদের প্রচারণায় মুখর এলাকা। আসন্ন নির্বাচনে মনোনয়ন পেতে আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে নির্বাচনী আলোচনা সভাটি পূর্বগ্রাম স্কুল মাঠে জায়েদের পক্ষে অনুষ্ঠিত হয়েছে। কায়েতপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব জাহেদ আলীর সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন, রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শাহরিয়ার পান্না সোহেল, সাবেক শ্রমিক লীগ নেতা মতিউর রহমান আকন্দ, রূপগঞ্জ উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মাহাবুবুর রহমান মেহের, রূপগঞ্জ উপজেলা যুবলীগ সভাপতি কামরুল হাসান তুহিন, রূপগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও আওয়ামী লীগ নেতা তাবিবুল কাদির তমাল, রূপগঞ্জ উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক নাঈম ভুঁইয়া, কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মো: বজলুর রহমান, রূপগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি ফয়সাল আলম শিকদার, উপজেলা যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক সেলিনা আক্তার রিতা, উপজেলা যুবলীগের সমাজ ক্যালান সম্পাদক মহসীন মিয়া, যুবলীগ নেতা, শফিকুল ইসলাম জাহিদ, কায়েতপাড়া ইউয়িন যুবলীগের সভাপতি আশিক ইকবাল, সাধারন সম্পাদক মোস্তফা আল হোসাইন রাসেল, কায়েতপাড়া ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি আলমগীর হোসেন, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল খন্দকার জয়, কায়েতপাড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি মো: ওমর ফারুক ভুইয়া (ইউপি সদস্য ৪ নং ওয়ার্ড), সাধারণ সম্পাদক নাদিম হোসেন অপু, চনপাড়া শেখ রাসেলনগর ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি আরাফাত, সাধারণ সম্পাদক স্বর্ণালী আক্তার।
সভায় বক্তারা বলেন, আগামী কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন কোনো অনুপ্রবেশকারী, দলীয় পদহীন ব্যক্তিকে দেওয়া হলে আমরা মানবো না। একজন ব্যক্তি আওয়ামী লীগের মনোনয়নের জন্য লবিং শুরু করে দিয়েছে। ঐ ব্যক্তি ভূমিদস্যু। তার দলীয় কোনো পদ নেই। টাকার জোড়ে সে মনোনয়ন কিনতে চায়। আমরা তাকে চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চাই না। তাকে মনোনয়ন দিলে আমরা কায়েতপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ মানবো না।
সভায় কায়েতপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি আলহাজ্ব জায়েদ আলী বলেন, নৌকার সাথে কোনোদিন বেইমানী করি নাই। নৌকা পেলে নির্বাচন করব। নৌকা না পেলে নির্বাচন করব না। আমি নৌকা পেলে অন্যরাও আশাকরি আমার নির্বাচন করবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক কায়েতপাড়ায় যে প্রার্থী দেবেন আমরা তা মেনে নেব।