সোমবার ১০ই মে, ২০২১ ইং ২৭শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Ad

কিশোর গ্যাং গডফাদার নিলয়ের ফাঁদে-অসহায় পরিবারের ৫ লক্ষ টাকা প্রতারনা !

আপডেটঃ ৭:৫৭ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২১

নিজস্ব প্রতিনিধি -: গাজীপুরের টঙ্গী পূর্ব থানার ঝিনু মার্কেট পাগাড় এলাকায় তেরো বছরের নাবালক মোঃ জিয়াউর রহমান জিহাদকে প্রতারনার ফাঁদে ফেলে তার বাবার জমি ক্রয়ের ঘরে রাখা প্রায় ৫ লক্ষ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে একই এলাকার স্থানীয় কিশোর গ্যাং গডফাদার মোঃ নিলয় এর বিরুদ্ধে। থানা অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, মোঃ মতিউর রহমান বর্তমানে পাগাড় ঝিনু মার্কেট এলাকায় পরিবারসহ ভাড়া বাসায় বসবাস করছেন। গত জানুয়ারী মাসের ১৬ তারিখে তার নাবালক ছেলে মোঃ জিয়াউর রহমান জিহাদ ঘরে রাখা তার বাবার জমানো জামি ক্রয়ের টাকা থেকে কাউকে কিছু না বলে দুই হাজার টাকা নিয়ে যায়। পরবর্তীতে জিহাদের কাছে টাকা দেখে অভিযুক্ত কিশোর গ্যাং লিডার নিলয় তাকে বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি প্রদান করে বলে, “তুই এত টাকা কোথায় পেয়েছিস? তোর বাবাকে বলে মার খাওয়াবো” এসময় নিলয় মোঃ জিয়াউর রহমান জিহাদকে বিভিন্ন ভয়ভীতি ও অস্ত্র দেখিয়ে জিহাদের কাছে থাকা দুই হাজার টাকা নিয়ে নেয় কিশোর গ্যাং লিডার নিলয় ।

পরবর্তীতে জিহাদের সরলতা সুযোগ নিয়ে তাকে ফুসলিয়ে ঘর থেকে আরো টাকা আনার জন্য চাপ দিতে ধাপে ধাপে জিহাদকে দিয়ে তার বাবার জমানো জমি ক্রয়ের সর্বমোট প্রায় ৫ লক্ষ টাকা অভিযুক্ত অপরাধী কিশোর গ্যাং লিডার নিলয় হাতিয়ে নেয়। পরবর্তীতে গত ২৩ জানুয়ারী মতিউর রহমানের টাকার প্রয়োজন হলে তিনি দেখতে পান জমানো টাকা তার রাখা স্থানে নেই। পরবর্তীতে তার স্ত্রী ও ছেলেকে জিজ্ঞেস করলে তার ছেলে জিহাদ বলে, নিলয় তাকে বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীতি ও অস্ত্র দেখিয়ে টাকা গুলো নিয়ে যায়। উক্ত বিষয়ে মতিউর রহমান এলাকার স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ এবং কিশোর গ্যাং লিডার নিলয় আত্মীয়-স্বজনদের বিচার দিলে তারা বিষয়টি দেখবে বলে সময় অতিবাহিত করতে থাকলে। তারই ধারাবাহিকতায়  গত ২৭ জানুয়ারী মতিউর রহমান টঙ্গী পূর্ব থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

চ্যানেল সেভেন বিডি এর প্রতিনিধি অনুসন্ধানে জানতে পেরেছে , স্থানীয় প্রভাবশালীদের প্রভাবে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী বিশেষ কোন পদক্ষেপ নেয় নাই এই অসহায় পরিবারটির পক্ষে। অনুসন্ধানে জানা গেছে, নিলয় গং এলাকায় পেশী শক্তির প্রভাব খাটিয়ে ত্রাশের রাজত্ব সৃষ্টি করেছে। উক্ত এলাকার সুধি সমাজ মাননীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছেন অসহায় পরিবারটির টাকা উদ্ধারের জন্য।