সোমবার ২রা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১৮ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

যে দেশে বঙ্গবন্ধু জন্ম নিয়েছেন সে দেশ পিছিয়ে থাকতে পারে না : বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী….

আপডেটঃ ৬:৫৮ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২১

এস,এম,মনির হোসেন জীবন : বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মোঃ মাহবুব আলী (এমপি) বলেছেন, যে দেশে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মত মহান নেতা জন্ম নিয়েছেন সে দেশ পিছিয়ে থাকতে পারে না। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমাদের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা সফল হবেই।  আজ বুধবার রাজধানীর কুর্মিটোলায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের মোটর ট্রান্সপোর্ট বিভাগের বাণিজ্যিক সেবা কার্যক্রমের উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য প্রদানকালে তিনি এ কথা বলেন।অনুষ্ঠানে আরো বক্তৃতা রাখেন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান মোঃ সাজ্জাদুল হাসান, বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মোঃ মফিদুর রহমান, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মোকাব্বির হোসেন প্রমূখ।বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার দেশের এভিয়েশন ও পর্যটন শিল্পের উন্নয়নে আন্তরিকভাবে কাজ করছে। নিরবে পাল্টে যাচ্ছে এ দুটি শিল্পের চেহারা। দেশের সকল বিমানবন্দরের উন্নয়নের পাশাপাশি ব্যবসার উপযুক্ত পরিবেশ নিশ্চিত করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, কোভিড-১৯ এর কারণে ক্ষতিগ্রস্ত দেশীয় এয়ারলাইন্সগুলিকে সহায়তা করার জন্য ইতোমধ্যে ২৬ মার্চ ২০২০ থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ পর্যন্ত সময়ের জন্য অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট এর ক্ষেত্রে প্রযোজ্য ল্যান্ডিং চার্জ, পার্কিং চার্জ, বোর্ডিং চার্জ, সিকিউরিটি চার্জ ও বিএনএইচও চার্জ শতভাগ মওকুফ করেছে সরকার।প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিমানের সক্ষমতা আছে, এখন তা কাজে লাগাতে হবে। উদ্ভাবনী, বহুমাত্রিক ও গতিশীল কর্ম পরিকল্পনার মাধ্যমে বিমানের রাজস্ব আয় বৃদ্ধি করতে হবে। বিমানের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের দক্ষতাকে সর্বোচ্চ ব্যবহার করতে হবে। বর্তমান যুগে কাজের বহুমাত্রিকরণ এর কোন বিকল্প নেই। বিমানের সেবার মান নিশ্চিত করার ব্যাপারে কোন আপস নয়। কর্মরত কারো বিরুদ্ধে যদি দুর্নীতির আভাস পাওয়া যায় বা কর্মে অবহেলার অভিযোগ পাওয়া যায় তবে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।উল্লেখ্য, বিমান মোটর সার্ভিস সেন্টারে বাণিজ্যিক সেবা কার্যক্রম শুরু হওয়ার ফলে জনসাধারণ এই আধুনিক মোটর সার্ভিস সেন্টার থেকে সাশ্রয়ী মূল্যে সেবা গ্রহণ করতে পারবেন।