মঙ্গলবার ১১ই মে, ২০২১ ইং ২৮শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

নওগাঁর পত্নীতলায় সার্টিফিকেট মামলার আসামী গ্রেফতার…

আপডেটঃ ১০:২৩ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২১

আলহাজ্ব বুলবুল চৌধুরী, নওগাঁ জেলা প্রতিনিধিঃ নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলার মধইল মৌজায় বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের বাস্তবায়নে ‘নওগাঁ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২’ এর ‘বৈদ্যুতিক উপকেন্দ্র’ স্থাপনে অধিগ্রহণকৃত জমির প্রকৃত মালিককে বাদ দিয়ে কৌশলে জমির মালিক সেজে চেক তুলে নেওয়ায় সার্টিফিকেট মামলার আসামী মধইল ইউপির দীঘিপাড়া গ্রামের মৃত আব্বাস আলীর ছেলে আল-মামুন গোলাপকে পত্নীতলা থানা পুলিশ আটক করেছে।

বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলা সদর সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসের সামনে থেকে পুলিশ উক্ত আল-মামুন গোলাপকে আটক করে বৃহস্পতিবার নওগাঁ কোট হাজতে প্রেরণ করেছে বলে পত্নীতলা থানার অফিসার ইনাচার্জ শামসুল আলম শাহ্ নিশ্চিত করেছেন।

জানাগেছে পত্নীতলা উপজেলার মধইল মৌজায় বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের বাস্তবায়নে ‘নওগাঁ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২’ এর ‘বৈদ্যুতিক উপকেন্দ্র’ স্থাপনে অধিগ্রহণকৃত জমির প্রকৃত মালিক মধইল গ্রামের আবদুল আজিজ সরদারের ছেলে বাকপ্রতিবন্ধী নূর আলম, মুনসুর রহমান চৌধুরীর ছেলে নূরুল ইসলাম মন্টু ও জাহিদুল ইসলাম এবং আক্কাস আলীর স্ত্রী তহমিনা বেগম হলেও কৌশলে জমির মালিক সেজে মধইল দীঘিপাড়া গ্রামের মৃত আব্বাস আলীর ছেলে আল-মামুন গোলাপ ও হাফিজ উদ্দিনের ছেলে ফজলু সরকার দশমিক ৪০ একর জমি ‘নওগাঁ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ কাছে বিক্রয় করলে জমির মূল্য বাবদ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড থেকে আল-মামুনের নামে ৬৫ লাখ ৫৩ হাজার ৭০৫ টাকা এবং ফজলু সরকারের নামে ৩৯ লাখ ৩২ হাজার ২২৩ টাকা মোট ১ কোটি ১৩ লাখ ৮৬ হাজার ২৩৬ টাকার চেক ইস্যু করে। তবে জমির মূল মালিককে বাদ দিয়ে কৌশলে ভূমি অধিগ্রহণ করা চেক হস্তান্তরের সময় জমির মূল মালিকদের পক্ষ থেকে অভিযোগ দায়ের হলে আইনি জটিলতায় চেকটি আটকে গেলেও পরবর্তিতে আল-মামুন ও ফজলু সরকার নানা কৌশল অবলম্বন করে অবৈধভাবে টাকা উত্তোলন করে। এ পর্যায়ে অবৈধভাবে টাকা উত্তোলনের কারণে উক্ত আল-মামুন ও ফজলু সরকারকে যথাযথ কর্তৃপক্ষ গত ১৩/০৫/২০২০ইং তারিখে ১৫৯ নং স্মারকে চেকের অর্থ ফেরতের জন্য নোটিশ প্রদান করলেও তা না করায় গত ১০/০৮/২০২০ ইং তারিখে ২২৮নং স্মারকে তাদের বিরুদ্ধে ১৬/২০১৭-১৮ এলএ কেসের অধিগৃহীত ০.৪০ একর সম্পত্তির ক্ষতিপূরণ চেকের মাধ্যমে প্রদত্ত টাকা ফেরতের জন্য ০২/২০২০ নং সার্টিফিকেট মামলা দায়ের হয়। এরই প্রেক্ষিতে উক্ত আল-মামুন ও ফজলু সরকার দীর্ঘদিন গা ঢাকা দিলেও গ্রেফতারি পরয়ানামূলে বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলা সদর সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসের সামনে থেকে পত্নীতলা থানা পুলিশ উক্ত আল-মামুন গোলাপকে আটক করে বৃহস্পতিবার নওগাঁ কোট হাজতে প্রেরণ করে।