মঙ্গলবার ১১ই মে, ২০২১ ইং ২৮শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

মদনে ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা…

আপডেটঃ ৭:৫১ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ১৭, ২০২১

মদন প্রতিনিধিঃ হাবিবুর রহমান-: করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচার জন্য সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে  স্বাস্থ্যবিধি মেনে দুপুর ১২ টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত  নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের  দোকান পাট খোলা রাখা যাবে। নেত্রকোনা জেলার মদন উপজেলায় কঠোরভাবে লকডাউন ঘোষণা থাকা সত্ত্বেও সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় তা মানা হচ্ছে খুব কম। সকল  ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও কোচিং সেন্টার  বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।
মদন পৌর সদরের  ৭নং ওয়ার্ডের স্থায়ী বাসিন্দা  সরোয়ার জাহান  (সাইদুল) ৪০  পিতা মৃত  মোঃ আব্দুল জলিল বেপারী লকডাউনে নিষেধ থাকা সত্ত্বেও   তার নিজ বাসায়  কোচিং সেন্টার খোলা রেখে ছাত্র _ছাত্রী পড়িয়ে আসছিলেন । এজন্য তাঁকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এবং মদন পৌর সদরে  রবিকুল স্টোরকে ২ হাজার টাকা, মোট ২২হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।
এসময় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বুলবুল আহমেদ।
সংক্রমণ রোগ প্রতিরোধ নির্মূল আইন ২০১৮ এর ২৪ নং ধারা অনুযায়ী কোচিং সেন্টারের মালিক  সারোয়ার জাহানকে ২০ হাজার টাকা এবং রবিকুল স্টোরকে ২ হাজার  টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।
এ ব্যাপারে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বুলবুল আহমেদ বলেন, সংক্রমণ রোগ প্রতিরোধ নির্মূল আইন ২০১৮ এর ২৪ নং ধারা অনুযায়ী কোচিং সেন্টারের মালিক  সারোয়ার জাহান সাঈরকে  ২০ হাজার টাকা এবং রবিকুল স্টোরকে ২ হাজার  টাকা জরিমানা করা হয়েছে।