সোমবার ১০ই মে, ২০২১ ইং ২৭শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Ad

বয়াতীর বসতভিটায় নির্মাণ হচ্ছে পাকাঘর…

আপডেটঃ ৮:৪৪ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ২৮, ২০২১

ময়দুল ইসলাম, বদরগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি-: রংপুরের বদরগঞ্জে লোকজ গানের কন্ঠ শিল্পী হতদরিদ্র উকিল উদ্দিন বয়াতীর বসতভিটায় সেমিপাকা বাড়ির নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে। রংপুরের বদরগঞ্জের ইউএনও মেহেদী হাসানের সার্বিক তত্ত্বাবধানে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার হিসেবে উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়নের আকন্দপাড়ায় গৃহহীন উকিল উদ্দিন বয়াতীর তিন শতাংশ জমির ওপর ঘর নির্মাণের উদ্বোধন করা হয়।
লোকজ সুরের মায়াজালে দোতারা নিয়ে পথ-প্রান্তরে ঘুরে বেড়ানো উকিল উদ্দিন বয়াতী এক কন্যা সন্তান নিয়ে ভাঙা একটি ঝুপড়ি ঘরে বসবাস করতেন। বাসস্থান ভাত-কাপড়ের দৈন্যদশায় মানবেতর জীবন যাপনকারি উকিল উদ্দিনের স্ত্রী ফজিলা আক্তার দীর্ঘদিন নানা রোগ-শোকে আক্রান্ত হয়ে ২০১৯ সালের ১২ মার্চ পরপারে চলে যান। তাঁর এই দিনযাপনের কথাগুলো বদরগঞ্জের মানবিক ইউএনও মেহেদী হাসানকে অবগত করেন। ইউএনও তাৎক্ষণিকভাবে উকিল বয়াতীর বাস্তবতা যাছাই করে বাড়ি নির্মাণের পদক্ষেপ নেন। অবশেষে উকিল উদ্দিনের বসতভিটায় মনোরম পরিবেশে সেমিপাকা দুইটি কক্ষ, একটি রান্না ঘর একটি টয়লেট দক্ষিণে বারান্দা নির্মাণের কাজ এগিয়ে চলছে।
ঘর নির্মাণ কাজের রাজমিস্ত্রি ইনসান আলী বলেন, ‘এক নম্বর ইট, রঙিন ঢেউটিন, টিউবয়েলসহ উন্নত মানের নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে ঘর নির্মাণের নির্দেশ দিয়েছেন ইউএনও স্যার। দ্রুত সময়ের মধ্যে বাড়ির নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করে উকিল উদ্দিনের হাতে ঘরের চাবি হস্তান্তর করা হবে।
উকিল উদ্দিন বলেন, এতদিন সরকারি কোন সহযোগিতা কপালে জোটেনি। করোনাক্রান্তিকালে চরম দুর্দিনে কাটছে সংসার। ইউএনও স্যারের সহযোগিতায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার স্বরুপ ভাঙা ঘর পাকা হচ্ছে। তাদের প্রতি আমার কৃতজ্ঞতা জানা ছাড়া আর কিছু করার নেই। সরকারের অনুদান থাকি দালানের ঘর বানে (তৈরি) দেওচে। কিন্তু পেটোত তো কিছু নাই। সেই হতাশায় মেয়েটাকে নিয়া দুশ্চিন্তা মাথায় ভর করি আছে।’
বদরগঞ্জের সেই মানবিক ইউএনও মেহেদী হাসান বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে ভুমীহিন, গৃহহীন ও আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্থ মানুষের জন্য বিশেষ তহবিল থেকে ঘর নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হয়। নিজের বিবেক থেকে এক বয়াতীর জন্য স্থায়ীভাবে কিছু একটা করতে পারায় ভালো লাগছে। সেখানে যাতে তার একমাত্র মেয়েকে নিয়ে সম্মানজনক অবস্থায় বসবাস করতে পারেন এজন্য যাছাই-বাছাই করে বাড়ি নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হয়। মানবিক সহায়তায় দরিদ্র মানুষের পাশে থাকার জন্য তিনি শুভসংঘের প্রতি ধন্যবাদ জানান।