সোমবার ১০ই মে, ২০২১ ইং ২৭শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Ad

মদনে হিন্দু সম্প্রদায়ের বীরেশ চৌধুরীর কে কুপিয়ে জখম থানায় মামলা…

আপডেটঃ ৭:১৩ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ৩০, ২০২১

মদন প্রতিনিধিঃ হাবিবুর রহমান– নেত্রকোনা জেলার মদন উপজেলায় ৫ নং মাঘান ইউনিয়নের মান্দারুয়া গ্রামের বীরেশ চৌধুরী কে (৫০) পিতা- মৃত মতীন্দ্র চৌধুরী গত মঙ্গলবার বিকালে মান্দারুয়া   টেকের কান্দা হাওড়ের জমিতে বোরো ধানের খড় শুকানোর সময় অতর্কিত হামলার শিকার হন।আহত বীরেশ চৌঃ গরুতর জখম হাওয়ায়  ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। 
এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, জায়গা জমি নিয়ে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে কুপিয়ে আহত করে বীরেশ চৌধুরীকে। এলাকাবাসী এ ঘটনার  তীব্র নিন্দা জানান, এবং এর সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন ।বিবাদীঃ ৮ নং ফতেপুর ইউনিয়নের  ছোটন মিয়া (২৬), পিতা রতন মিয়া তার হাতে থাকা ধারালো দেশীয় অস্ত্র রামদা  দিয়ে খুন করার উদ্দেশ্যে  বীরেশ চৌধুরীর মাথার পিছন দিকে কুপ মারলে বীরেশ চৌধুরী মাটিতে পড়ে  যায়, বিবাদী হায়দার(৩৮) পিতা আব্দুল লতিফ তার হাতে থাকা লোহার রড দিয়ে খুন করার উদ্দেশ্য বুকের ডান পাশে বারি মারলে বুকের হাড় ভেঙে যায় , বিবাদী জিবেশ তালুকদার (৫৫) পিতা মৃত রমণী তালুকদার তার হাতে থাকা লোহার রড দিয়ে খুন করার উদ্দেশ্য মাথায় আঘাত করতে চাইলে বাম হাত দ্বারা ফিরালে তাহার হাতের হাড় জখম হয়, বিবাদী সাগর (২৫) তার হাতে থাকা লোহার রড দিয়ে  হাঁটুর নিচে আঘাত করলে পায়ের হাড় ফেটে জখম হয়, বিবাদীরা বীরেশ চৌধুরীকে এলোপাতাড়িভাবে পিটাইয়া শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করে, 

এ ব্যাপারে ৫ নং মাঘান ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট জি এম শামসুল আলম চৌধুরী বলেন, হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর আঘাত হানায় তীব্র নিন্দা ও সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি।
এ ব্যাপারে বিবাদী হায়দার বলেন, গত এক বছরের ভিতরে আমি একদিনও হাওরে যাই নাই, এ বিষয়ে আমি কিছুই জানিনা । আমার উপর মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে ৮ নং ফতেপুর ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, মান্দারুয়া টেকের কান্দা হাওড়ে ঝগড়া হয়েছে শুনেছি, প্রকৃত অপরাধীদের সর্বোচ্চ বিচার হোক এটাই কাম্য। 
এ ব্যাপারে মদন থানা অফিসার ইনচার্জ ফেরদৌস আলম এ প্রতিনিধিকে জানান, বীরেশ চৌধুরীর ছেলে, হৃদয় চৌধুরী বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। এখনও কাউকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। আসামি গ্রেপ্তারের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।