মঙ্গলবার ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১লা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

ফিলিস্তিনে বর্বর হামলার চরম মূল্য দিতে হবে সন্ত্রাসী ইসরাইলকে— আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআত

আপডেটঃ ১১:১৮ অপরাহ্ণ | মে ১৩, ২০২১

চ্যানেল সেভেন বিডি -( সংবাদ বিজ্ঞপ্তি ) : দফায় দফায় আল আকসা মসজিদে নামাজরত মুসল্লির উপর বর্বর হামলা ও গাজায় হত্যাকান্ডের প্রতিবাদে গতকাল ( ১৩ মে) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেছে আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআত বাংলাদেশ ঢাকা।
ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ মোস্তফা জিলানীর সঞ্চালনায় ঢাকা মহানগরের উত্তরের সভাপতি আল্লামা ড. হাফেজ হাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণ ও ঢাকা জেলার যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রীয় নির্বাহী মহাসচিব শাইখুল হাদিস আল্লামা মুফতি আবুল কাশেম মুহাম্মদ ফজলুল হক, প্রেসিডিয়াম সদস্য ড.এ.কে.এম মাহাবুবুর রহমান, আলহাজ্জ মোহাম্মদ ইকবাল, যুগ্ম মহাসচিব মুফতি মাহমুদুল হাসান আল কাদেরী, গোলাম মাহমুদ ভূঁইয়া মানিক, মাওলানা নাজমুস সায়াদাত ফয়েজী, ড.মুফতি নাছির উদ্দিন নঈমী, মাওলানা মহিউদ্দিন হামেদী, মাওলানা সোলাইমান খান রাব্বানী, মাওলানা ফরহাদুল ইসলাম বুলবুলি, এডভোকেট ইকবাল হাসান, মোহাম্মদ হোসেন, আবদুল মুস্তফা মুহাম্মদ রাহিম আল আজহারী, অধ্যক্ষ আবু নাসের মুহাম্মদ মুসা, ইমরান হুসাইন তুষার, মাওলানা মারুফ বিল্লাহ আশেকী, মাসউদ হোসাইন, এড. আবুল কালাম আজাদ, খন্দকার মোবারক হোসাইন, মাওলানা একে এম ইয়াকুব হোসাইন, মাওলানা শাফায়েত উল্লাহ, আরিফুল ইসলাম, কাজী সিহান প্রমূখ।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন- অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইল পবিত্র আল-আকসা মসজিদের মুসল্লির উপর গুলি, টিয়ারসেল, বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা ধ্বংস, বিমান ও গ্রেনেড হামলা চালিয়ে যেভাবে তান্ডব অব্যাহত রেখেছে, তা চরম অন্যায় এবং মানবতা বিরোধী অপরাধ। এ বর্বরোচিত হামলা ও ফিলিস্তিনি মুসলমানদের হত্যা করে বিশ্ব মুসলিমের হৃদয়ে আঘাত হেনেছে। ইহুদীবাদী ইসরাইলের এ জুলুম নির্যাতন ও হত্যাকান্ড বিশ্ব মুসলিম কোনভাবেই বরদাশ করবে না।
আহলে সুন্নাত নেতারা আরও বলেন- মুসলমানদের মর্যাদাপূর্ণ রমজান মাসে এমন হামলা কাপুরুষতারই বহি:প্রকাশ। আকষ্মিক ইসরায়েলি বাহিনীর নির্বিচারে বর্বর হামলা নির্মমতা ও মানবাধিকার লঙ্গনের অনন্য দৃষ্টান্ত। এ হামলা কখনো মেনে নেওয়া যায় না। এ হামলার জন্য ইসরায়েলকে শাস্তি পেতেই হবে। তারা চরম সীমালঙ্গন করেছে।
আহলে সুন্নাতের নেতৃবৃন্দ আরও বলেন-বারবার ফিলিস্তিনে হামলা করলেও জাতিসংঘ,ওআইসি, আরবলীগের নিরব ভূমিকায় প্রতিনিয়ত মুসলমানদের প্রথম কিবলা ফিলিস্তিনে আল আকসা ও মুসলমানদের হামলার সুযোগ নিচ্ছে। অথচ এসব সংস্থার দৃশ্যমান কোন ভূমিকা কিংবা দায়িত্বশীল বিবৃতি দৃশ্যমান হয়নি। এসব নিষ্কর্মা তল্পিবাহকরা ভূমিকা রাখতে বারবার ব্যর্থ হচ্ছে। এসব সংস্থাগুলো টুঠো জগন্নাথে পরিণত হয়েছে। এ হত্যাকান্ড ও হামলার সুরাহা না হলে বিশ্বকে চরম মূল্য দিতে হবে বলে হুশিয়ারী উচ্চারণ করেন আহলে সুন্নাত নেতৃবর্গ। ইসরাইলি এসব হামলার মাধ্যমে তাদের সৃষ্ট জঙ্গি সংগঠনকে দিয়ে বিশ্বে নতুন যুদ্ধ তৈরী করার একটি হীন প্রয়াস মাত্র। সাথে সাথে ইসরাইলকে সন্ত্রাসী রাষ্ট্র হিসাবে বিচারের আওতায় এনে শাস্তি প্রদান করতে জাতি সংঘের প্রতি আহবান জানান।