মঙ্গলবার ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১লা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

মদনে বেড়ে চলছে চুরের উৎপত্তি

আপডেটঃ ৫:৫৮ অপরাহ্ণ | জুন ০৯, ২০২১

হাবিবুর রহমান, মদন প্রতিনিধি-: নেত্রকোনার মদন উপজেলায় প্রশাসনের নজর ফাঁকি দিয়ে দিন দিন বেড়েই চলছে চুরি। পৌরসভার দোকান-পাটগুলোতে চলছে একের পর এক চুরি। এছাড়াও উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে প্রতিনিয়তই হচ্ছে গরু চুরি।

প্রতিটি গ্রামগঞ্জের বাজারে বাজারে দোকান-পাটের তালা ভেঙ্গে দোকানের মালামাল চুরি হচ্ছে। বাসা বাড়ির ঘরের তালা ভেঙ্গে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র চুরি প্রতিনিয়তই হচ্ছে। চুরের অত্যাচারে অতিষ্ঠ মদনবাসী।

এর পিছনের কারণ খুঁজতে গেলে বেরিয়ে আসে অনেক কিছু। গুণীজনেরা বলেন, প্রতিটি চা স্টলে মোবাইলের মাধ্যমে টাকা দিয়ে চলছে লুডু-খেলা, মাঠে ঘাটে হচ্ছে জুয়া খেলা। আরেক কারণ হলো, মাদক সেবন। এলাকায় বেড়ে গেছে মাদক সেবনকারী। যারা মাদক সেবন করে, তাদের হাতে টাকা না থাকলেই চুরির পথ বেছে নিচ্ছে বলে মনে করছেন।

এলাকার লোকজন গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ আরো বলেন, পুলিশ জনগনের বন্ধু। পুলিশ যদি প্রতিটি চা স্টলে তালাশি দেয়, তবে ধরতে পারবে মোবাইলে মোবাইলে জুয়া লুডু খেলা।

প্রশাসন যদি কঠোর হাতে দমন করে, তাহলেই সম্ভব চুরি বন্ধ করা। সাধারণ মানুষের এখনো আস্থা-বিশ্বাস আছে প্রশাসনের প্রতি।

জাহাঙ্গীরপুর কেন্দ্রীয় বাজারের বণিক সমিতির সভাপতি বাবু সুরজিৎ বৈশ্য চৌধুরী বলেন, যে হারে চুরি শুরু হল, যেমন- দুলালের দোকানে, শামীমের দোকানে, লিটনের দোকানে কয়েকদিন পর পর বিভিন্ন দোকানে চুরি হচ্ছে। এলাকায় বেশি চুরি হচ্ছে গরু, প্রশাসনের সু-নজর টহল দরকার আমি মনে করি। কয়দিন আগে তিন জন অপ্রাপ্ত বয়স ডেন্ডি সেবক চোর ধরে সমাজসেবা অফিসে পাঠিয়েছিলাম।

সমাজসেবা অফিসার শাহ জামান আহাম্মেদ জানান আমার কাছে অপ্রাপ্ত বয়স তিন জন চুর ও ডেন্ডি কোর ধরে নিয়ে আসছিল আমি এদের অভিভাবকের সাথে কথা বলেছি, গাজীপুর শিশু সংশোধনা গাড়ে, উর্দ্ধতন কর্মকর্তার সাথে কথা বলে পাঠাবো।

মদন উপজেলার আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব আঃ কদ্দুছ, এ প্রতিনিধিকে বলেন, আমি প্রশাসনকে বলবো, তাদের উপর অর্পিত দায়িত্ব যেন সঠিকভাবে পালন করে। জুয়া খেলা এবং মাদক সেবন, মদনে যেন না হতে পারে।

এব্যাপারে মদন থানা অফিসার ইনচার্জ ফেরদৌস আলম বলেন, চোর দমনের জন্য, বিশেষ অভিযান টহল ও মাদক কারবারিদের ধরার জন্য বিশেষভাবে প্রশাসন প্রস্তুত আছে। কিন্তু জনগণের সহযোগিতা চাই।