| |

Ad

গাজীপুরে শ্রমিক মারধরের ঘটনায় বিক্ষোভ-কর্মকর্তা বরখাস্ত

আপডেটঃ ৭:৫৯ পূর্বাহ্ণ | নভেম্বর ১৩, ২০১৮

গাজীপুর:নিজস্ব প্রতিবেদক : গার্মেন্টসের পরিত্যাক্ত কাপড়ের (ঝুট) সঙ্গে ভালো ফেব্রিক্স নিয়ে যাওয়ার অভিযোগে তিন শ্রমিককে মারধরের ঘটনায় গাজীপুরে শ্রমিক অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। শ্রমিকদের শান্ত করতে উৎপাদন কর্মকর্তাকে বরখাস্ত এবং কারখানা তিন দিনের ছুটি ঘোষণা করেছে এএমসি নিট কম্পোজিট নামে একটি পোশাক কারখানা।

এ ঘটনার প্রতিবাদে সোমবার সকাল থেকে গাজীপুর সদর উপজেলার বানিয়ারচালা এলাকার ওই কারখানার কয়েক হাজার শ্রমিক কর্মবিরতি পালন ও বিক্ষোভ করে আসছিল।

গাজীপুর শিল্পাঞ্চল পুলিশের ইন্সপেক্টর হাবিব ইস্কান্দার জানান, গত রোববার কারখানায় কাজ করার সময় কয়েকজন শ্রমিক ঝুটের সঙ্গে কিছু ভালো ফেব্রিক্সও নিয়ে যায়। বিষয়টি দেখতে পেয়ে কারখানার উৎপাদন কর্মকর্তা (পিএম) শুভ, ব্যবস্থাপক (প্রশাসন) এনামুল হক, সহকারী ম্যানেজার আরাফাত হোসেন ও সহকারী ম্যানেজার আকাশ মিলে তিন শ্রমিককে মারধর করে। এমনকি মারধরের ঘটনা প্রকাশ না করার জন্য হুমকি দেয়া হয় তাদের।

সোমবার সকালে ঘটনা জানাজানি হলে শ্রমিকরা বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে। একপর্যায়ে তারা শ্রমিক নির্যাতনের প্রতিবাদে এবং পিএমের বরখাস্তের দাবিতে কারখানায় কর্মবিরতি ও বিক্ষোভ শুরু করে। খবর পেয়ে শিল্প পুলিশ ওই কারখানায় যায়। দুপুরে শ্রমিক বিক্ষোভ বেড়ে গেল কারখানা কর্তৃপক্ষ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পিএম শুভকে বরখাস্ত এবং কারখানা তিনদিনের জন্য ছুটি ঘোষণা করে।

কারখানার একাধিক শ্রমিক জানান, রোববার ঝুট নামানোর সময় ভুলে ঝুটের সঙ্গে কিছু ভালো কাপড়ও চলে যায়। এ নিয়ে কারখানার পিএম শুভ শ্রমিক বাবুল হোসেন, জব্বার মিয়া ও হামিদুল ইসলামকে মারধর করে। তারা অসুস্থ হয়ে পড়লে স্থানীয় একটি হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। এ ঘটনার প্রতিবাদে এবং ওই কর্মকর্তার বরখাস্তের দাবিতে সোমবার সকাল থেকে তারা কর্মবিরতি ও বিক্ষোভ শুরু করেন।

এ ব্যাপারে কথা বলতে কারখানার প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও কেউ ফোন রিসিভ করেননি।