রবিবার ২৬শে মে, ২০১৯ ইং ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

পাকিস্তানের বিমানবন্দর খুলতে শুরু করেছে- উত্তেজনা হ্রাসের ইঙ্গিত

আপডেটঃ ১১:৪৪ পূর্বাহ্ণ | মার্চ ০৩, ২০১৯

আর্ন্তজাতিক: প্রতিবেশী ভারতের সঙ্গে সামরিক উত্তেজনার কারণে বন্ধ ঘোষণা করা পাকিস্তানের বিমানবন্দরগুলো পুনরায় খুলতে শুরু করেছে।
শুক্রবার দেশটির করাচি, ইসলামাবাদ, পেশাওয়ার এবং কোয়েটা বিমানবন্দর আংশিকভাবে খুলে দেওয়া হয় এবং কয়েকটি উড়োজাহাজ চলাচল করে।বাণিজ্যিক উড়োজাহাজ চলাচলের জন্য সোমবার নাগাদ সবগুলো বিমানবন্দর পুরোপুরি খুলে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে পাকিস্তানের সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষ।সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষের মুখপাত্র বলেন, স্থানীয় সময় সোমবার দ্পুুর ১টা (জিএমটি ০৮:০০) থেকে পাকিস্তানেরআকাশসীমা সব ধরনের বাণিজ্যিক ফ্লাইটের জন্য খুলে দেওয়া হবে।পাকিস্তানের বিমানবন্দর খুলে দেওয়ার ঘোষণা স্বাভাবিকভাবেই পরমাণু শক্তিধর দুই প্রতিবেশী দেশের মধ্যে উত্তেজনা কমে আসার ইঙ্গিত দিচ্ছে।

গত ১৪ ফেব্রæয়ারি ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের পুলওয়ামায় আত্মঘাতী হামলায় ৪০ ভারতীয় সেনা নিহতের ঘটনায় চির বৈরী দুই প্রতিবেশীর মধ্যে নতুন করে উত্তেজনা দেখা দেয়।পাকিস্তান ভিত্তিক জঙ্গি দল জইশ-ই-মোহাম্মদ ওই হামলার দায় স্বীকার করার পর প্রতিশোধ নিতে ভারতের বিমানবাহিনী পাকিস্তানে ঢুকে জঙ্গি দলটির প্রশিক্ষণ ঘাঁটিতে বোমাবর্ষণ এবং তিন শতাধিক জঙ্গিতে হত্যার দাবি করে।প্রতিবেশী দেশের আকাশসীমা লঙ্ঘনের জবাব দিতে পাকিস্তানের ফাইটার জেট ভারতের আকাশসীমায় প্রবেশ করলে তা প্রতিহত করতে ভারতের মিগ-২১ সেগুলোকে ধাওয়া দেয়।
আকাশে দুই দেশের এই লড়াইয়ে পাকিস্তান দুইটি ভারতীয় মিগ-২১ ভ‚পাতিত করার দাবি করে এবং একজন বৈমানিককে আটক করে। ভারতও পাকিস্তানের একটি ফাইটার-১৬ ভ‚পাতিত করার দাবি করে।

দুই প্রতিবেশীর চতুর্থবারের মত যুদ্ধে জড়িয়ে পড়া যখন সময়ের ব্যাপার মাত্র তখনই ঘটনায় নটকীয় মোড় নেয়।পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ভারতের উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান ধরা পড়ার একদিন পরই তাকে মুক্তি দেওয়ার ঘোষণা দেন এবং প্রতিশ্রæতি অনুযায়ী শুক্রবার রাতে অভিনন্দনকে ভারতের হাতে তুলে দেওয়া হয়।অভিনন্দন ফিরে আসার পর উত্তেজনা কিছুটা কমলেও সীমান্তে এখনো দুই পক্ষের মধ্যে গোলাগুলি চলছে।পাকিস্তানের আকাশসীমা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় সারা বিশ্বেই বিশেষ করে এশিয়া ও ইউরোপের দেশগুলোতে আকাশ পথে চলাচল বিঘিœত হচ্ছে।অনেক এয়ারলাইন তাদের ফ্লাইট বাতিল করতে বাধ্য হয়েছে, ভোগান্তিতে পড়েছে হাজার হাজার যাত্রী।