বৃহস্পতিবার ২৩শে মে, ২০১৯ ইং ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

টর্নেডোয় যুক্তরাষ্ট্রে নিহত অন্তত -২৩

আপডেটঃ ১:১৮ পূর্বাহ্ণ | মার্চ ০৫, ২০১৯

আর্ন্তজাতিক: যুক্তরাষ্ট্রের আলাবামায় টর্নেডোর আঘাত হানা, শিশুসহ অন্তত ২৩ জন নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষগুলো।রোববার দুপুরের দিকে অঙ্গরাজ্যটির লি কাউন্টিতে আঘাত হানা বেশ কয়েকটি টর্নেডোয় প্রাণহানির পাশাপাশি ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে খবর বিবিসির।
লি কাউন্টির শেরিফ জে জোন্স স্থানীয় গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, তারা এখনও লোকজনকে ধ্বংসস্তূপ থেকে টেনে বের করছেন, এদের মধ্যে গুরুতর আহত কয়েকজনকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।আবাসিক এলাকাগুলো ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে এবং বিপুল পরিমাণ ধ্বংসস্তূপের ভিতর থেকে হতাহতদের বের করা চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে বলে সিএনএনকে জানিয়েছেন তিনি।

আরও মৃতদেহ পাওয়ার আশঙ্কা করছেন এবং আহতের মোট সংখ্যা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি বলেও জানিয়েছেন তিনি।এলাকাটিতে আঘাত হানা প্রথম টর্নেডোটির বাতাসের সর্বোচ্চ গতিবেগ ২৬৬ কিলোমিটার/ঘন্টা ছিল বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিস (এনডবিøউএস)।
শেরিফ জোন্স ক্ষয়ক্ষতিকে ‘বিপর্যয়কর’ বলে বর্ণনা করেছেন। সবেচেয়ে ধ্বংসাত্মক টর্নেডোটি এগিয়ে যাওয়ার পথে লি কাউন্টির ব্যুরোগার্ড এলাকার সবকিছু ধ্বংস করে সিকি মাইল চওড়া ও কয়েক মাইল লম্বা একটি পথ তৈরি করেছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

স্থানীয় সংবাদপত্রের খবর অনুযায়ী, আলাবামার তিন হাজারেরও বেশি লোক বিদ্যুৎবিহীন অবস্থায় রয়েছেন এবং এদের অধিকাংশই লি কাউন্টির বাসিন্দা।রাত নামার পর অন্ধকারের মধ্যে তল্লাশি বিপজ্জনক হওয়ায় উদ্ধার অভিযান পরবর্তী ভোর পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছে।মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা কর্তৃপক্ষের।

আবহাওয়া পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে বলে এক টুইটে স্থানীয় বাসিন্দাদের সতর্ক করেছেন আলাবামার গভর্নর কে আইভি। টুইটে লি কাউন্টির নিহতদের জন্য গভীর শোক প্রকাশ করেছেন তিনি।টর্নেডোর পর ওই অঞ্চলগুলোর তাপমাত্রা নেমে প্রায় শূন্য সেলসিয়াসের কাছাকাছি চলে যাবে বলে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে।

আলাবামার প্রতিবেশী জর্জিয়া, ফ্লোরিডা ও সাউথ ক্যারোলাইনায়ও টর্নেডো সতর্কর্তা জারি করা হয়েছে।ফ্লোরিডার উত্তরাঞ্চলের ওয়াল্টন কাউন্টি ও কায়রোতে টর্নেডো হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।এ পর্যন্ত মৃত সবাই লি কাউন্টির বাসিন্দা। জর্জিয়ার টালবোটোনেও বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে, তবে তাদের আঘাত তেমন গুরুতর নয়। টর্নেডোয় জখম ৪০ জনেরও বেশি লোককে চিকিৎসা দেওয়ার কথা জানিয়েছে ইস্ট আলবামা মেডিক্যাল সেন্টার। আহত আরও লোক সেখানে চিকিৎসা নিতে আসবে বলে ধারণা করছে মেডিক্যাল সেন্টারটির কর্তৃপক্ষ।এক টুইটে আলাবামার আবহাওয়াবিদ এরিক স্নিটিল জানিয়েছেন, ২০১৮ সালে পুরো যুক্তরাষ্ট্রে টর্নেডোতে যত লোক মারা গেছে এ দিন লি কাউন্টিতে তার চেয়ে বেশি লোক মারা গেছে।সোমবার লি কাউন্টির সব স্কুল বন্ধ থাকবে বলে ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।