রবিবার ২৬শে মে, ২০১৯ ইং ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

জব্দকৃত বিদেশী সিগারেটের মূল্য প্রায় ২ কোটি ২৭ লাখ টাকা- শাহজালালে ৪ হাজার ৫৪৯ কার্টন বিদেশী সিগারেট জব্দ

আপডেটঃ ১:৪৭ পূর্বাহ্ণ | মার্চ ০৫, ২০১৯

এস,এম,মনির হোসেন জীবন ॥ ঢাকা হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক ৪ হাজার ৫৪৯ কার্টন আমদানী নিষিদ্ধ বিদেশী সিগারেট জব্দ করেছে ঢাকা কাস্টম হাউসের এয়ারফ্রেইট ইউনিট (প্রিভেনটিভ টিমের) কর্মকর্তারা। এগুলো ‘পার্সোনাল ইফেক্টস’ ঘোষণা দিয়ে আমদানি করা হয়েছিল। আটক সিগারেটগুলো ডানহিল, ট্রিপল ফাইভ, মোন্ড, থ্রি জিরো থ্রি এবং ইজি ব্র্যান্ডের। মিথ্যা ঘোষণা দিয়ে বিদেশ থেকে বিপুল পরিমান সিগারেট গুলো ঢাকায় আনা হয়। জব্দকৃত বিদেশী সিগারেটের আনুমানিক বাজার মূল্য প্রায় ২ কোটি ২৭ লাখ টাকা।রোববার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে শাহজালাল বিমানবন্দরের এয়ারফ্রেইট ইউনিট থেকে এসব বিদেশী সিগারেট গুলো জব্দ করা হয়। ঢাকা কাস্টম হাউসের উপ-কমিশনার অথেলো চৌধুরী সোমবার  সিগারেট উদ্বারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, রোববার দিবাগত রাত সাড়ে ১১টায় এমিরেটস এয়ারলাইন্সের (ইকে-৫৮৪) ফ্লাইটে করে চালানটি ঢাকা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে অবতরণ করে। বিমান থেকে নামানোর পর রাত আড়াইটার দিকে শাহজালাল বিমানবন্দরের এয়ারফ্রেইট ইউনিট (প্রিভেনটিভ টিমের) অভিযান চালিয়ে এগুলো উদ্ধার করা হয়। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের এয়ারফ্রেইট ইউনিট থেকে মিথ্যা ঘোষণায় আনা সিগারেটগুলো জব্দ করা হয়েছে। জব্দকৃত বিদেশী সিগারেটের আনুমানিক বাজার মূল্য প্রায় ২ কোটি ২৭ লাখ টাকা।

কাস্টমস কর্মকর্তারা  জানান, সিগারেটের প্যাকেটের গায়ে বাংলায় ধূমপানবিরোধী সতর্কীকরণ লেখা ব্যতীত বিদেশি সিগারেট আমাদানি করা যায় না। আটক সিগারেটগুলো ডানহিল, ট্রিপল ফাইভ, মোন্ড, থ্রি জিরো থ্রি এবং ইজি ব্র্যান্ডের। রফতানি কারকের নাম মো. তাজুল ইসলাম এবং আমদানিকারক এমএস এম রাজ ও মেসার্স মিরাজ এন্টারপ্রাউজ। আটক পণ্যের বিষয়ে শুল্ক আইনে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে  জানান ঢাকা কাস্টম হাউসের উপ-কমিশনার অথেলো চৌধুরী।