রবিবার ২৬শে মে, ২০১৯ ইং ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

টঙ্গীতে ছিনতাইকারী চক্রের মূল হোতা আলমগীরসহ ১১ ছিনতাইকারী গ্রেফতার ॥ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার

আপডেটঃ ৭:৪৩ পূর্বাহ্ণ | মার্চ ০৬, ২০১৯

বিশেষ সংবাদদাতা :-গাজীপুর -টঙ্গী-এস,এম,মনির হোসেন জীবন : গাজীপুর মহানগরীর টঙ্গী পূর্ব থানাধীন টঙ্গী রেলওয়ে স্টেশন এলাকায় ছিনতাইয়ের প্রস্তুতিকালে ছিনতাইকারী চক্রের মূলহোতা মোঃ আলমগীর (৫০) সহ সংঘবদ্ধ ছিনতাইকারী চক্রের ১১জন সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-১) উত্তরার একটি দল। এসময় ছিনতাইকারীদের কাছ থেকে দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। র‌্যাবের হাতে আটককৃতরা হলেন-মোঃ আলমগীর (৫০), মোঃ আব্দুল হালিম (৩০), মোঃ খোকন মিয়া (৫০), মোঃ অরুন মিয়া (৩৫), মোঃ সেন্টু মিয়া (৩৫), মোঃ আলমগীর (২০), মোঃ রফিক (২৮), মোঃ শাকিল (২০) মোঃ বাদশা (১৯) ও মোঃ বিশাল খান প্রমুখ। এসময় ধৃত আসামীদের নিকট হতে ২ টি ধারালো ছোরা, ২ টি চাপাতি, ১ টি ছিনতাইকৃত ট্যাব, ১২টি মোবাইল ফোন ও নগদ ১৬হাজার ৯১০ টাকা উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-১) উত্তরার অধিনায়ক (সিও) লেফটেন্যান্ট কর্ণেল সারওয়ার বিন কাশেম মঙ্গলবার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।তিনি জানান, সোমবার দিবাগত রাত আনুমানিক ১১টার দিকে র‌্যাব-১ এর একটি আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, গাজীপুর মহানগরীর টঙ্গী পূর্ব থানাধীন টঙ্গী রেলওয়ে স্টেশন এলাকায় ছিনতাইয়ের প্রস্তুৃতি গ্রহণের উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে। প্রাপ্ত সংবাদের ভিত্তিতে আভিযানিক দলটি ছিনতাইকারী চক্রের সদস্যদেরকে ধরার জন্য ওই এলাকায় ঝটিকা অভিযান চালায়। এসময় র‌্যাব সদস্যরা ছিনতাইকারী চক্রের মূলহোতা মোঃ আলমগীর (৫০) তার সহযোগী মোঃ আব্দুল হালিম (৩০), মোঃ খোকন মিয়া (৫০), মোঃ অরুন মিয়া (৩৫), মোঃ সেন্টু মিয়া (৩৫), মোঃ আলমগীর (২০), ৭) মোঃ রফিক (২৮), ৮) মোঃ শাকিল (২০) মোঃ বাদশা (১৯), মোঃ বিশাল খান সহ মোট ১১জনকে দেশীয় অস্ত্র সহ হাতে নাতে গ্রেফতার করে।

র‌্যাব-১ এর কর্মকর্তারা জানান, গাজীপুর মহানগরীর টঙ্গী এলাকায় কতিপয় ছিনতাইকারী চক্র দীর্ঘদিন ধরে সক্রিয় ছিল। ধৃত ছিনতাইকারীরা টঙ্গী ও আশপাশের এলাকায় সাধারণ পথচারী ও মটরসাইকেল আরাহীদের অস্ত্র দেখিয়ে বিভিন্নভাবে ভীতি প্রদর্শন করে তাদের নিকট থেকে মোবাইল, টাকা-পয়সা ও মূল্যবান সামগ্রী ছিনতাই করে আসছিল।

আসামীদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা র‌্যাবকে জানায়, তারা একটি সংঘবদ্ধ ছিনতাইকারী চক্রের সক্রিয় সদস্য। তারা পরস্পর যোগসাজশে দীর্ঘদিন যাবৎ তারা টঙ্গী এলাকায় সাধারণ লোকজনকে দেশীয় অস্ত্র দেখিয়ে নগদ টাকা-পয়সা ও মূল্যবান সামগ্রী ছিনতাই করতো। তারা ফাঁকা ও নির্জন স্থানে ওৎ পেতে থাকে এবং রাস্তায় গাড়ি ও পথচারী দেখা মাত্রই তাদের গতি রোধ করে মূল্যবান সামগ্রী ছিনিয়ে নেয়। আটককৃত ১১জন ছিনতাইকারীকে জিঞ্জাসাবাদ শেষে টঙ্গী পূর্ব থানায় সোপর্দ করা হবে। এঘটনায় র‌্যাবের পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: কামাল হোসেন মঙ্গলবার রাতে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।