বৃহস্পতিবার ২৩শে মে, ২০১৯ ইং ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

কলারোয়ায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে জামালপুরের রাজিব আটক

আপডেটঃ ৮:০৯ পূর্বাহ্ণ | মার্চ ০৬, ২০১৯

জুলফিকার আলী,কলারোয়া(সাতক্ষীরা)প্রতিনিধি: একাধীক নারী নির্যাতন মামলা সহ ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মেহেদী হাসান রাজিব (২৮) নামে এক ব্যক্তিকে কলারোয়া থানা পুলিশ আটক করেছে। সে জামালপুরের রিয়ার বাজার ৮ নং সরদার পাড়া গ্রামের হাবিবুর রহমান হবির ছেলে। কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মনিরুজ্জামান জানান-থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জেল্লাল হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে তাকে কলারোয়া বাসস্ট্যান্ড থেকে আটক করেন। আটককৃত আসামীর বিরুদ্ধে কলারোয়া থানায় ২০১৮সালের ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ২৯/৩১ ধারায় একটি মামলা নং-৩(৩)১৯ রয়েছে। এছাড়া তার বিরুদ্ধে জামালপুর থানায় এফআইআর নং-৪২,পেনাল কোর্ড-১৮৬০,সাতক্ষীরা বিজ্ঞ নারী ও শিশু আদালতে নারী ও শিশু নির্যাতন মামলা নং-৪৪৮/১৮, পারিবারিক মামলা নং-২৯/১৮সহ বিভিন্ন জেলা ও থানায় একাধীক মামলা রয়েছে। কলারোয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জেল্লাল হোসেন জানান-আটকৃতমেহেদী হাসান রাজিব বিভিন্ন স্থানে সুন্দরী মেয়েদের প্রতারনা মুলক ভাবে বিয়ে করে। পরে তারের পরিবারের কাছে মোটা অংকের টাকা দাবী করে। টাকা দিতে না চাইলে গোপনে ধারন করা অশ্লিলন ভিডিও বিভিন্ন মোবাইলের ইমোতে ছেড়ে দেয়। একই ভাবে কলারোয়া উপজেলার কেঁড়াগাছি গ্রামের বাসিন্দা ঢাকা সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের নার্স এই প্রতারনায় স্বীকার হয়ে কলারোয়া থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা নং-৩(৩)১৯করেন। এই মামলায় মেহেদী হাসান রাজিবকে আটক করা হয়। সকালে তাকে সাতক্ষীরা আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।